কোচবিহার: কাশ্মীরে শহিদ জওয়ানদের আত্মার শান্তির কামনা করে কোচবিহার মদনমোহন মন্দিরে পুজো দিলেন উত্তরবঙ্গ উন্নয়ন মন্ত্রী রবীন্দ্রনাথ ঘোষ। পাশাপাশি এদিন প্রধানমন্ত্রীর সমালোচনা করেন তিনি। তাঁর দাবি কেন্দ্রীয় সরকারের অপদার্থতার জন্যই এই ঘটনা।

আগামী লোকসভা নির্বাচনে বিজেপিকে মানুষ ছুড়ে ফেলে দেবে বলে দাবি করেন তিনি। যদিও তাঁর এই বক্তব্যের সমালোচনা করেছে জেলা বিজেপি। তাঁদের অভিযোগ রবীন্দ্রবাবু রাজনীতি করছেন। বৃহস্পতিবার কাশ্মীরে সেনা কনভয়ে জঙ্গি হানায় জওয়ানদের শহিদ হওয়ার পর থেকে দেশ জুড়ে ক্ষোভ ছড়িয়েছে।

তেমনি বাদ যায়নি কোচবিহার৷ শুক্রবার বিকেল থেকে বিভিন্ন সংগঠনের মোমবাতি মিছিলের সাক্ষী ছিল শহরের সাগরদিঘী চত্বর। এবার শহিদ জওয়ানদের আত্মার শান্তি কামনায় মদন মোহন মন্দিরে পুজো দিলেন উত্তরবঙ্গ উন্নয়ন মন্ত্রী রবীন্দ্র নাথ ঘোষ। শহিদ জওয়ানদের আত্মার শান্তি কামনার পাশাপাশি সীমান্তে মোতায়েন সৈনিকদের দীর্ঘায়ু কামনা করেন তিনি।

এছাড়াও জঙ্গিদের বিরুদ্ধে সেনারা যাতে কঠোর ব্যবস্থা নিতে পারে সেই প্রার্থনাও করেছেন তিনি। এদিন এই পুজোতে মন্ত্রীর সঙ্গে ছিলেন কোচবিহার পুরসভার চেয়ারম্যান ভূষণ সিং সহ অন্যান্যরা। পুজো দেওয়ার পরে কেন্দ্র সরকারকে কটাক্ষ করেছেন রবী বাবু৷ তাঁর দাবি কেন্দ্রে এক অপদার্থ সরকার চলছে, আর এই সরকারের জন্যই এই ধরনের হামলার ঘটনা।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী সম্পর্কে বলতে গিয়ে উত্তরবঙ্গ উন্নয়ন মন্ত্রী বলেন, দেশে এই সময় শোক পালন করার কথা, তা না করে প্রধানমন্ত্রী রেলের উদ্বোধনে ব্যস্ত। তিনি ২০১৯-এ মানুষ ভোটের মাধ্যমে এই ঘটনার জবাব দেবে। যদিও এই নিয়ে রবীন্দ্র নাথ ঘোষকে কটাক্ষ করেছে বিজেপি। বিজেপি যুব মোর্চার জেলা সভাপতি সমীর রায় বলেন যখন দেশ শহিদদের স্মরণ করছে তখন উত্তরবঙ্গ উন্নয়ন মন্ত্রী রাজনীতি করছেন, যা অত্যন্ত দুঃখের।