গ্রাফিক্স- মিতুল দাস

নিউজ ডেস্ক, কলকাতা: ‘ভারতীর সঙ্গে যা হয়েছে তা অনুচিত, কিন্তু উনি গত ৪০-৫০ দিন ধরে সন্ত্রাস তৈরী করার চেষ্টা করছেন’, রবিবার কেশপুরে ভারতীর ঘটনায় এমনই বক্তব্য ঘাটালের তৃণমূল প্রার্থী দেবের৷ রবিবার ষষ্ঠদফায় রাজ্যের আটটি লোকসভা কেন্দ্রে চলছে ভোটগ্রহণ পর্ব৷ আর এই সব কেন্দ্রের মধ্যে সবথেকে উত্তপ্ত হয়ে উঠল কেশপুর এবং খবরের শিরোনামে ঘাটালের বিজেপি প্রার্থী ভারতী ঘোষ৷

রবিবার সকালে কেশপুরের চাঁদখোলাতে ভারতীকে হেনস্তা করার অভিযোগ ওঠে৷ শুরু হয় ধাক্কাধাক্কি৷ আর তাতেই পড়ে গিয়ে প্রার্থী আহত হন এবং কান্নায় ভেঙে পড়েন৷ এদিকে কেশপুরে পিকুরদায় ১৩৯ নম্বর বুথে ভারতী ঘোষের ভিডিওগ্রাফি করার অভিযোগ জানা গিয়েছে৷ এই অভিযোগ পেয়ে নির্বাচন কমিশন এই খবর পেয়ে পদক্ষেপ নেবে বলেও জানা যায়৷

এর পাশাপাশি দোগাছিয়াতে ভারতীয় গাড়ি ঘিরে হামলা হয়, চলে ইট-পাথরবৃষ্টি৷ তার দেহরক্ষীর ইটের ঘায়ে মাথা ফাটে৷ ভারতী ঘোষ জানান, তাঁকেও ঘুষি মারা হয়৷ কেন্দ্রীয়বাহিনীর জওয়ানদের গাড়িও ভাঙচুর হয়৷ তাকে রক্ষায় শূন্য পাঁচ রাউন্ড গুলি ছোঁড়ে তাঁর দেহরক্ষীরা৷ আর তাতেই এক তৃণমূল কর্মী, বখতিয়ার খান আহত হন বলে জানা যায়৷ তার চিকিৎসা চলছে৷

এই সমস্ত ঘটনা নিয়ে রবিবারের কেশপুর সরগরম৷ আটকে দেওয়া হয় ভারতী ঘোষের গাড়ি৷ অনুমতি নেই এমন গাড়ি নিয়ে তিনি প্রবেশের চেষ্টা করেন বলেই তা সিজ করা হয়েছে বলে জানা যায়৷ সেই সঙ্গে চলে বিক্ষোভ৷ পরিস্তিতি নিয়ন্ত্রণে লাঠিচার্জ শুরু করে পুলিশ৷ সেই সঙ্গে তৃণমূল কর্মী সমর্থকরা ভারতীর উদ্দেশ্যে ‘Go Back’ স্লোগান দিতে থাকেন বলে জানা যায়৷ জনতাকে ছত্রভঙ্গ করতে নামে ব়্যাফও৷

ঘাটালে ভারতীয় ঘোষের প্রতিদ্বন্দ্বী তৃণমূলের প্রার্থী সাংসদ-অভিনেতা দেব এই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে বলেন, ‘ভারতী ঘোষের সঙ্গে যা হয়েছে তা অনুচিত, কিন্তু তিনি গত ৪০-৫০ দিন ধরে সন্ত্রাস তৈরী করার চেষ্টা করছেন৷ পুলিশকে চমকাচ্ছেন৷ টাকা নিয়ে ঢুকে পড়েছেন৷ টাকা নিয়ে ধরা পড়েছেন৷ ১৫ জন কর্মী নিয়ে বুথে ঢুকেছেন৷ শ্যুট করছেন৷ উনি তো প্রাক্তন এসপি৷ উনি নিজে সব নিয়ম জেনেও নিয়ম ভাঙছেন৷’ পাশাপাশি দেব এও বলেন, আমি চাই শান্তিপূর্ণ ভাবে ভোটটা হোক৷ শুধু আমার রাজ্যে নয়, গোটা দেশে৷ আমার আসাতে যদি ভালো কিছু হতে পারে তাই রাজনীতিতে আসা বললেন দেব৷