কলকাতা : বলিউডকে হার মানালেন দেব৷ পুজোর সেলিব্রেশনের মজা তো একদিকে ছিলই, পাশাপাশি পার্টি মুডকেও চাঙ্গা করতে ‘হইচই আনলিমিটেড’র টাইটেল ট্র্যাক নিয়ে হাজির হয়েছেন টলি সুপারস্টর৷ এই প্রথম ফ্ল্যাশমবের সঙ্গে কোনও বাংলা ছবির গান লঞ্চ হল৷ যেখানে সামিল ছিল আমার আপনার মতো অসংখ্য সাধারণ মানুষ৷ দিন কতক আগে থেকেই দেব সকলকে আমন্ত্রণ জানিয়ে দিয়েছিলেন সোশ্যাল মিডিয়ায়৷ শহরের একটি অভিজাত মলে ফ্ল্যাশমবের সঙ্গে পারফর্ম করবেন তিনি এবং ছবির অন্যান্য তারকারা৷ নিজের কথা থেকে সরার পাত্র দেব নন৷

সকলের সঙ্গে সেলিব্রেট করলেন তাঁর ছবির সেরা ট্র্যাকের লঞ্চিং অনুষ্ঠান৷ দেবের ছবি মানেই একটা আলাদা উৎসব৷ বক্স অফিস থেকে শুরু করে দর্শকের মন সবই ধীরে ধীরে জিতে নিয়েছেন তিনি৷ এবারও তার অন্যথা হল না৷ ‘হইচই আনলিমিটেড’র টাইটেল ট্র্যাক রিলিজ করলেন ফ্ল্যাশ মবের সঙ্গে গ্র্যান্ড পদ্ধতিতে৷ এবার আসা যাক গানের কথায়৷ চব্বিশ ঘন্টাও পেরয়নি গানটি রিলিজ করেছে৷ ইতিমধ্যেই লক্ষাধিক ভিউজ ছাড়িয়েছে ‘হবে রে হইচই’৷ মিকা সিং গেয়েছেন এই পার্টি অ্যান্থেমটি৷ সঙ্গে মধুমন্তী বাগচিও রয়েছেন৷

ছবি: ট্যুইটারের সৌজন্যে

গানের হিরো-হিরোইন দেব এবং কৌশানির সম্বন্ধে যত প্রশংসা করা যায় ততই কম৷ তাঁদের কস্টিউম, অ্যাটিটিউড সবকিছুই টু দ্য পয়েন্ট৷ সঙ্গে গানের কোরিওগ্রাফি৷ এমন কোরিওগ্রাফি কোনও টলিউডের গানে হয়েছে কিনা সন্দেহ৷ কোরিওগ্রাফির দায়িত্বে ছিলেন অরবিন্দ ঠাকুর৷ গানটি দেখলেই আপনার মনে হবে আপনি নিজেই সেই জায়গায় পৌঁছে গিয়েছেন৷ পুজোর প্যান্ডেলে প্যান্ডেলে যে ‘হবে রে হইচই’ চলতে থাকবে সেটা একেবারে গ্যারেন্টি দিয়ে বলা যেতে পারে৷ দেব ছবি এবং গান মানে তাতে অভিনবত্ব থাকবেই৷ সেই মতোই এই ইউনিক পেপি নম্বরে মুগ্ধ করেছেন দর্শক এবং শ্রোতাদের৷

ছবি: ট্যুইটারের সৌজন্যে

আরও পড়ুন: বলিউডি ‘প্রাক্তন’কে ঋতুপর্ণার শুভেচ্ছা

দেবের এই ইভেন্টে আসার জন্য দূর দূর থেকে বহু ফ্যানেরা এসেছিলেন৷ অনেকে সময় মতো বাড়ি ফিরতে পারেনি৷ স্টেশন থেকেই ছবি তুলে পোস্ট করেছে ট্যুইটারে, দেবকে ট্যাগ করে একজন ফ্যান লিখেছে, “দাদা আমার বাড়ি বর্ধমান৷ আজ গিয়েছিলাম তোমার ইভেন্টে৷ দেখ দাদা, এখনো বাড়ি ফিরতে পারিনি৷ স্টেশনে বসে৷ কাল সকালে ফিরতে ফারব৷ লাভ ইউ গুরুদেব”

এই ভক্তের মতোই আরও বহু মানুষই কাল ফিরতে পারেনি৷ আর এমন অনুরাগীদের জন্য এই ধরণের ইভেন্ট অরগানাইজ করেন দেব৷ যাতে তাদের আরও কাছে পৌঁছতে পারেন দেব৷ প্রত্যেকের ট্যুইট শেয়ার করা থেকে শুরু করে তাদের রিপ্লাই করা, সবটাই মন থেকে করেন তিনি৷

আরও পড়ুন: ছিপছিপে মডেল নয়, মহিলা বক্ষেই আগ্রহ সব্যসাচীর