এই মুহূর্তে বাংলা সিনেমার জনপ্রিয় নায়কের তালিকায় প্রথমেই যাঁর নাম থাকে তিনি দেব। বাংলা সিনেমাতে একের পর এক হিট ছবি দিয়েছেন তিনি। আর তাঁর ব্যক্তিগত জীবন নিয়েও কোনও লুকোছাপা নেই। প্রেমিকা রুক্মিণী ও এখন টলিউডে বেশ পরিচিত মুখ। দুজনে চুটিয়ে প্রেম করছেন বহুদিন ধরেই। তবে বিয়ের ব্যাপারে কানাঘুষো থাকলেও তেমন নিশ্চিত কোনও খবর নেই। এর মধ্যেই সোমবার রাতে সবাইকে চমকে দেন দেব।

হঠাত করে ফেসবুকে পোস্ট করলেন একটি বিয়ের কার্ডের ছবি। একেবারে লাল রঙের অবিকল একটি বিয়ের কার্ড। যেখানে বড় বড় করে লেখা শুভ বিবাহ। আর সেই ছবি থেকেই শুরু প্রবল জল্পনা। দেবের অনুরাগীমহলে প্রশ্ন উঠতেই থাকে তবে কি টলিউডের হাই প্রোফাইল বিয়ের সানাই বাজল? গোটা রাত তো বটে, আজ মঙ্গলবার সারাদিন দেবের পোস্ট করা বিয়ের কার্ড নিয়ে তীব্র জল্পনা তৈরি হয়।

ফেসবুক এবং অন্যান্য সোশ্যাল মিডিয়াতে পোস্ট করা কার্ডের নীচে কমেন্ট করে অনেকেই জানতে চান কবে বিয়ে, কার সঙ্গে বিয়ে। আবার কেউ কেউ মনে করেন, এটা নিছকই একটা সিনেমা আর তার পাবলিসিটি স্টান্ট। দীর্ঘ জল্পনার পর অবশেষে ফাঁস হয়েছে কার্ড রহস্য। দেবের নয়া প্রযোজনা সংস্থার ছবি আসতে চলেছে। নয়া ছবির নাম ‘শুভ বিবাহ’। যেখানে অভিনয় করছেন পরাণ বন্দ্যোপাধ্যায় থেকে শুরু করে আরও অনেকে।

তারই প্রমোশনে বিয়ের কার্ড সোশ্যাল নেটওয়ার্কে প্রকাশ করেছেন সুপারস্টার। আর এর সঙ্গে জুড়ে দিয়েছেন ছোট্ট দুষ্টুমি। নিজের অ্যাকাউন্ট থেকে লিখেছেন,‘‘বিফোর অ্যানিওয়ান লিকস… হোপ ইউর ব্লেসিংস উইল বি দেয়ার…’’। সঙ্গে দুষ্টু-মিষ্টি ইমোজি। আর এতেই তৈরি হয়েছে বিভ্রান্তি। হৈ হৈ পড়ে গেছে সোশ্যাল নেটওয়ার্কে। চর্চা শুরু হয়ে যায় টলিউডে।

রইল সেই সিনেমার পোস্টার-

কার্ড প্রকাশ্যে এনেছেন খোদ দেব নিজেই। যেখানে তাঁর কাকা-কাকিমার জন্যে সব মানুষের কাছে আশির্বাদ চেয়েছেন। উল্লেখ্য, সদ্যই প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পেয়েছে দেব-সৌমিত্রর যুগলবন্দী ‘সাঁঝবাতি’ ৷ ছবির ব্যবসাও বেশ তরতরিয়ে এগিয়েছে ৷ দেবের অভিনয়ও মন ভরিয়েছে সমালোচক থেকে সিনেপ্রেমী সকলেরই ৷

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ