প্রতীকি ছবি

চণ্ডীগড় : ছাত্রীদের নগ্ন করে পরীক্ষা করার অভিযোগ উঠল বিশ্ববিদ্যালয়েরই কর্মীদের বিরুদ্ধে। পাঞ্জাবের ভাটিন্ডার অকাল বিশ্ববিদ্যালয়ে এই অভিযোগ ঘিরে উত্তাল৷ অভিযোগ, শৌচালয়ে কোনও এক ছাত্রী ব্যবহৃত স্যানিটরি প্যাড ফেলে যান। কে এই কাজ করেছে তা জানতে বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী আবাসের প্রায় ১২ জনকে নগ্ন করে পরীক্ষা করা হয়।

খবর ছড়িয়ে পড়তেই অভিযুক্তদের শাস্তির দাবিতে বিশ্ববিদ্যালয় চত্বরে বিক্ষোভ শুরু হয় । ছাত্রীদের নগ্ন করে পরীক্ষা করার খবর ছড়িয়ে পড়ায় কর্তৃপক্ষ প্রথমে একে সামান্য ভুল বলে উল্লেখ করে। কিন্তু তাতে ছাত্রীদের ক্ষোভ আরও বেড়ে যায়। প্রায় ৬০০ থেকে ৭০০ জন ছাত্রী বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন। চাপে পড়ে দুই মহিলা ওয়ার্ডেন ও দুই মহিলা নিরাপত্তাকর্মীকে বরখাস্ত করে কর্তৃপক্ষ। তবে তাদের বিরুদ্ধে কর্তব্যে গাফলতির অভিযোগ আনা হলেও কোনও আইনি পদক্ষেপ নেয়নি কর্তৃপক্ষ।

ছাত্রীদের অভিযোগ কর্তৃপক্ষ প্রথমে টালবাহানা করতে থাকে। পরে চাপে পড়ে তাদের বরখাস্ত করে। ছাত্রীদের আরও অভিযোগ এই বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবেশ অত্যন্ত রক্ষণশীল। এখানে ছাত্রদের সঙ্গে ছাত্রীদের কথা পর্যন্ত বলতেও দেওয়া হয় না। ছাত্র ছাত্রীদের তরফে দাবি করা হয়েছে, শুধু বরখাস্ত করলেই হবে না। অভিযুক্ত চার কর্মীর বিরুদ্ধে আইনি পদক্ষেপ করতে হবে।

শুভম জয়সওয়াল নামে বিশ্ববিদ্যালয়ের এক প্রাক্তন সহকারী শিক্ষক গত ২৭ এপ্রিল টুইট করে ঘটনার বিষয়ে জানান। সেই সঙ্গে ছাত্রছাত্রীদের অভিযোগের কপিগুলিও নিজের টুইটার অ্যাকাউন্ট থেকে পোস্টও করেন।