স্টাফ রিপোর্টার, বাঁকুড়া: বেহাল রাস্তা সারাইয়ের দাবিতে অভিনব প্রতিবাদের সাক্ষী থাকল বাঁকুড়া। জেলার পাত্রসায়রের রামপুর নতুনবাজার থেকে পতশপুর প্রায় সাড়ে তিন কিলোমিটার রাস্তা দীর্ঘ দিন বেহাল। প্রায়শই ঘটছে ছোটো-খাটো দুর্ঘটনা।

স্থানীয় বাসিন্দাদের অভিযোগ, প্রশাসনের বিভিন্ন স্তরে জানিয়েও কোন কাজ হয়নি। অবশেষে জল জমে গর্ত হয়ে যাওয়া রাস্তার উপর ধানের চারা রোপন করে প্রতিবাদ জানালেন স্থানীয় বাসিন্দারা।

এদিনের প্রতিবাদ আন্দোলনে অংশ নিয়ে স্থানীয় বাসিন্দা বরুণ বিশ্বাস বলেন, বামেদের ৩৪ বছর, কিম্বা তৃণমূলের আট বছর এই রাস্তার কোনও কাজ হয়নি। এই বেহাল রাস্তা দিয়ে অসংখ্য ছাত্র ছাত্রীরা যেমন স্কুলে যায় তেমনি কৃষি প্রধান এই এলাকার যোগাযোগের একমাত্র মাধ্যম এই রাস্তাটিই। সামান্য বৃষ্টিতে জল জমে যায়। ফলে যাতায়াত করা একেবারেই দুর্বিষহ হয়ে পড়ে।

এদিন আন্দোলনে অংশ নেওয়া বারাসাত গ্রামের জয়ন্ত বাগদী বলেন, আমরা বাধ্য হয়েই প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষণের জন্য রাস্তার উপর ধান লাগালাম। এর পরেও যদি এই রাস্তা সংস্কার না হয়, তবে তারা বৃহত্তর আন্দোলনে নামার হুঁশিয়ারি দিয়েছেন।

স্থানীয় বাসিন্দা করুণা বাগদির কথায়, এই রাস্তাটির এমন অবস্থা একটি সাইকেল গেলে আর পেরোনোর জায়গা থাকেনা। একে রাস্তায় গর্ত, তারপর দু’পাশে গাছ। এলাকার বিভিন্ন রাস্তা গুলি যখন নতুন করে তৈরী হচ্ছে তখন এই রাস্তাটি কেন হবেনা তা নিয়েও প্রশ্ন তোলেন তিনি।

এবিষয়ে স্থানীয় নারায়নপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান তোতন মল্লিক ঐ রাস্তাটি বেহাল তা স্বীকার করে বলেন, বিষয়টি উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে। যত দ্রুত সম্ভব রাস্তাটি পাকা করা যায় তার উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে বলে তিনি জানান।