স্টাফ রিপোর্টার, কোচবিহার: ধিক্কার!

গ্রেফতারির হুমকি দিয়ে চিত্র সাংবাদিকের ক্যামেরা কেড়ে নিয়ে ছবি ডিলিট করাতে বাধ্য করালেন দিনহাটা থানার আইসি৷ কোচবিহারের দিনহাটা থানায় ব্যবসায়ীদের ডেপুটেশনের খবর সংগ্রহ করতে পুলিশি হেনস্থার শিকার স্থানীয় একটি বৈদ্যুতিন সংবাদ মাধ্যমের চিত্র সাংবাদিক৷ অভিযোগ, গ্রেফতারির হুমকি দিয়ে সাংবাদিকের ক্যামেরা কেড়ে নিয়ে ছবি ডিলিট করতে বাধ্য করালেন দিনহাটা থানায় আইসি জহর জ্যোতি রায়ের বিরুদ্ধে৷

শুধু ছবি ডিলিট করাই নয়, সাংবাদিককে থানা থেকে ঘাড়ধাক্কা দিয়ে তারিয়ে দেওয়া হয়৷ পুলিশের এই ব্যবহারে চূড়ান্ত অপমানিত হন ওই সাংবাদিক৷ আইসির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানিয়ে জেলা পুলিশ সুপারের হস্তক্ষেপ চেয়ে দিনহাটার এসডিপিও স্মারকলিপি জমাদেন দিনহাটার প্রেস ক্লাবের সদস্যরা৷ পরে তাঁরা দিনহাটা থানার সামনে ধর্নায় বসেন৷ এসডিপিও কুন্তল বন্দ্যোপাধ্যায়ের আশ্বাসে অবরোধ তুলে দেন দিনহাটা প্রেস ক্লাবের সদস্যরা৷

আজ দুপুরে দিনহাটা চওরাহাট ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতির পক্ষ থেকে দিনহাটা থানায় এলাকায় চুরি বন্ধের দাবিতে একটি স্মারক লিপি জমা দেওয়া হয়৷ সেই কর্মসূচি ক্যামেরা বন্দি করতে যান স্থানীয় খবর চ্যানেলের চিত্র সাংবাদিক প্রশান্ত সাহা৷ এর পরেই দিনহাটা থানার আইসি জহর জ্যোতি রায় প্রশান্তকে ছবি তুলতে বাঁধা দেন বলে অভিযোগ৷ তাঁর ক্যামেরা থেকে তোলা ভিডিও ডিলিট করার নির্দেশ দেন আইসি৷ প্রশান্ত এই ঘটনার প্রতিবাদ করলে তাকে ডিলিট না করলে থানা থেকে বের হতে দেওয়া হবে না বলে হুমকি দেওয়া হয়৷ গ্রেফতারিরও হুঁশিয়ারিও দেওয়া হয় বলে অভিযোগ৷

এরপর এক প্রকার জোর করেই প্রশান্তর ছবি ডিলিট করতে বাধ্য করেন তিনি৷ স্মারকলিপির কর্মসূচিতে পাশাপাশি তাকে দিনের অন্যান্ন খবর গুলিও ডিলিট করতে বাধ্য করা হয়৷ ঘটনার তীব্র নিন্দা করেছে দিনহাটা প্রেস ক্লাব ও কোচবিহার প্রেস ক্লাব৷ বিষয়টি রাজ্য পুলিশের ডিজির নজরে আনা হয়েছে বলে জানিয়েছেন কোচবিহার প্রেস ক্লাবের সম্পাদক সুমন কল্যাণ ভদ্র৷