ওয়াশিংটন : করোনায় আক্রান্ত গোটা বিশ্ব। দেখতে দেখতে বছর শেষ হতে চললেও সংক্রমণের রেশে লাগাম পড়েনি এতটুকু। বরং দিন যতই যাচ্ছে ততই বাড়ছে উদ্বেগ। আর এই অবস্থায় দ্রুত করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে মাউথ ওয়াশের উপর ভরসা রাখার দাবি জানাচ্ছেন একদল গবেষক।

মার্কিন স্বাস্থ্যসংক্রান্ত জার্নালে প্রকাশিত একটি গবেষণার রিপোর্টে বিজ্ঞানীরা দাবি করেছেন, নিয়মিত মাউথ ওয়াশ দিয়ে গার্গেল করলে করোনার মতো যেকোনও ধরনের জীবাণু, ক্ষতিকর ব্যাকটেরিয়া এবং ভাইরাসের হাত থেকে মাএ ৩০ সেকেন্ডের মধ্যেই সুরক্ষা মিলবে।

এমনকি গবেষকরা আরও দাবি করে জানিয়েছেন যে, মাউথওয়াশের মধ্যে থাকা ০.০৭ শতাংশ সিটিপাইরিডিনিয়াম ক্লোরাইড যেকোনও ভাইরাসের বিরুুদ্ধে লড়াইয়ে অত্যন্ত কার্যকরী একটি উপাদান।

এই বিষয়ে আমেরিকার কার্ডিফ বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকরা ‘ডেন্টিল’ নামক যুক্তরাষ্ট্রের মাউথ ওয়াশ ব্র্যান্ডকে ব্যবহার করার জন্য পরামর্শ দিয়েছেন।

জানা গিয়েছে, ডেন্টিল হল যুক্তরাষ্ট্রের একমাত্র মাউথ ওয়াশ ব্র‍্যান্ড যেটিকে ব্যবহারের জন্য ১২ সপ্তাহ ধরে ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল দেওয়া হয়েছিলো। পরীক্ষায় সফল হওয়ার পরই ডাক্তার এবং মার্কিন গবেষকরা এই মাউথওয়াশ দিয়ে প্রতিদিন দুবার গার্গেল করার পরামর্শ দিয়েছেন।

যদিও গবেষকদের এই প্রতিবেদনটি এখনও সমকক্ষ পর্যালোচনা করা হয়নি। তবে গত সপ্তাহে প্রকাশিত আরেকটি গবেষণাকে সমর্থন করে, যা সিপিসি ভিত্তিক মাউথওয়াশগুলি কোভিডের ভাইরাল লোড কমাতে কার্যকর বলে প্রমাণ করেছেে।

এই ডেন্টিল মাউথ ওয়াশের আরও একটি ক্লিনিকাল ট্রায়ালের পরবর্তী পরীক্ষা করা হবে। যেটি কার্ডিফের ইউনিভার্সিটির ওয়েলস হাসপাতালের কোভিড -১৯ রোগীদের লালারসের ভাইরাস রোধে মাউথওয়াশ কতটা কার্যকর তা পরীক্ষা করে দেখবে।

আর এই গবেষণার ফলাফলটি ২০২১ সালের প্রথম দিকেই প্রকাশিত হবে বলে আশা করা হচ্ছে।

তবে বর্তমান মহামারী রুখতে এই ডেন্টিল মাউথ ওয়াশ কতটা কাজে দেবে তা এখনই হলফ করে বলতে পারছেন না বিজ্ঞানীরা।

সপ্তম পর্বের দশভূজা লুভা নাহিদ চৌধুরী।