স্টাফ রিপোর্টার, বারাকপুর: বর্ষার শেষে আবারও বাংলায় ফিরেছে ডেঙ্গুর আতঙ্ক৷ ইতিমধ্যে বাংলার বিভিন্ন প্রান্তে বহু মানুষের আক্রান্ত হওয়ার খবর পাওয়া যাচ্ছে৷ বেশ কয়েকজনের মৃত্যুও হয়েছে৷

এবার ভুল চিকিৎসায় ডেঙ্গু আক্রান্তের মৃত্যুর অভিযোগ উঠল উত্তর ২৪ পরগনার নৈহাটি পুরসভা এলাকায়৷ সেখানকার ৯ নম্বর ওয়ার্ডের গৌরীপুর এলাকার বাসিন্দার মৃত্যুতে এই অভিযোগ উঠেছে৷

আরও পড়ুন: এগিয়ে নীরাজ, খেলরত্নের দৌড়ে মীরাবাঈ, বজরংও

পরিবার সূত্রে জানা গিয়েছে, মঙ্গলবার রাতে তাঁদের একজনের মৃত্যু হয়৷ তাঁর নাম গীতা শাহ৷ তিনি কল্যাণী হাসপাতালে ভরতি ছিলেন৷ সেখানেই তাঁর মৃত্যু হয়৷ ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়েছে গীতাদেবীর মেয়ে সরস্বতী শাহ ও তাঁর ছেলে৷ দুই ভাই-বোনই বেলঘরিয়ার একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন৷

গীতাদেবীর পরিবারের অভিযোগ, নৈহাটি পুরসভার মাতৃসদন হাসপাতালে সাত দিন আগে ভরতি হন গীতাদেবী। তাঁর বাড়ির লোকের অভিযোগ, গীতাদেবীকে চিকিৎসা না করে মহিলা সংক্রান্ত অন্য চিকিৎসা করেছে ডাক্তাররা। এরপর গতকাল অবস্থা খুব খারাপ হওয়ায় তখন তাঁকে অন্যত্র ট্রান্সফারের কথা বলে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

আরও পড়ুন: মশা নিধনে পথে নামলেন স্বয়ং জেলাশাসক

এরপর গীতা দেবীর পরিবার কল্যাণী হাসপাতালে তাঁকে নিয়ে গেলে তাঁর মৃত্যু হয়। ভুল চিকিৎসায় মৃত্যু হয়েছে গীতা দেবীর এমনটাই অভিযোগ তার পরিবারের সদস্যদের।