স্টাফ রিপোর্টার, শিলিগুড়ি:  মরার ওপর খাঁড়ার ঘা! পাহাড়ে অশান্তি অব্যাহত৷ এবার তার দোসর হয়ে হানা দিয়েছে মারণরোগ ডেঙ্গু৷ ডেঙ্গুর প্রকোপ থরহরিকম্প হাল শিলিগুড়ির। এখনও পর্যন্ত আক্রান্তের সংখ্যা ১৬৮ জন। ইতিমধ্যে মারণ রোগের প্রকোপে মৃত্যু হয়েছে দুজনের৷ কয়েকজনকে দিতে হয়েছে প্লেটলেট৷

শিলিগুড়ি পুর নিগমের তরফে ইতিমধ্যেই পুরো বিষয়টি জানানো হয়েছে রাজ্যের স্বাস্থ্য সচিবকে৷ দার্জিলিংয়ের মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক অসিত বিশ্বাস বলেন, ‘‘ডেঙ্গু প্রতিরোধে আমরা যথাযথ পদক্ষেপ নিচ্ছি৷ বিষয়টি রাজ্য স্বাস্থ্য দফতরকেও জানানো হয়েছে৷’’

এদিকে শহরে ডেঙ্গুর প্রকোপকে কেন্দ্র করে চাপান উতোর শুরু হয়েছে শাসক বিরোধীতে৷ ডেঙ্গুতে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে চলায় বাম পরিচালিত পুরনিগমকেই তোপ দেগেছে তৃণমূল। পুরনিগমের বিরোধী দলনেতা তৃণমূলের রঞ্জন সরকার বলেন, ‘‘স্বাস্থ্য নিয়ে ছেলে খেলা করছে পুরসভা। এক বছর ধরে পুরসভার স্বাস্থ্য বিভাগের মেয়র পারিষদ নেই। অন্যদিকে মেয়র পদ ছাড়তে চাইছেন না। শহরে যেভাবে ডেঙ্গু বাড়ছে, তাতে আমরা চিন্তিত।’’

একই অভিমত কংগ্রেস কাউন্সিলর সুজয় ঘটকের৷ তিনি বলেন, ‘‘পুর নিগমের ৪৭ টি ওয়ার্ডেই ডেঙ্গু থাবা বসিয়েছে। বাড়ছে জ্বরের রোগীর সংখ্যা৷ অথচ পুর কর্তৃপক্ষর কোনও হুঁশ নেই।’’ যদিও বিরোধীদের যাবতীয় অভিযোগ উড়িয়ে শিলিগুড়ির মেয়র তথা রাজ্যের প্রাক্তন বাম মন্ত্রী অশোক ভট্টাচার্যর দাবি, ‘‘ডেঙ্গুর প্রতিরোধে যথাযথ কাজ করছে পুর নিগম৷ বিরোধীদের কাজ মিথ্যে কথা বলা, ওরা সেটাই করছেন৷’’