নয়াদিল্লি: মুম্বাই ও আমেদাবাদের মধ্যে বুলেট ট্রেন চালু করার কথা আগেই ঘোষণা করেছিল রেলমন্ত্রক৷ এবার সেই পথে হেঁটে দিল্লি ও বারাণসীর মধ্যে ৭৮২ কিমি রেল করিডরে দেশের দ্বিতীয় বুলেট ট্রেন চালানোর সিদ্ধান্ত নিতে চলেছে কেন্দ্র৷ যা অতিক্রম করতে সময় লাগবে ২ ঘণ্টা ৪০ মিনিট৷

রেলমন্ত্রক সূত্রে খবর, দিল্লি-বারাণসী রেলপথের পাশাপাশি কেন্দ্রের নজরে রয়েছে দিল্লি-কলকাতা বুলেট ট্রেনের রেলপথও৷ রেলের এই মেগা প্রজেক্টের খরচের কোনও নির্দিষ্ট হিসেব দিতে না পারলেও রেল মন্ত্রকের এক উচ্চপদস্থ আধিকারিক জানিয়েছেন আনুমানিক ৪৩ হাজার কোটি টাকা খরচ হতে পারে দিল্লি-বারাণসী রেল করিডরের জন্য এবং আনুমানিক ৮৪ হাজার কোটি টাকা খরচ হতে পারে দিল্লি –কলকাতা রেল করিডরের জন্য৷ তবে তিনি জানিয়েছেন, চুড়ান্ত রিপোর্ট দেবে স্পেনের একটি সংস্থা৷ যারা এই মেগা প্রজেক্টের বিষয়ে সমীক্ষা চালাচ্ছে৷

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর লোকসভা কেন্দ্র বারাণসী৷ এছাড়া আগামী বছর উত্তরপ্রদেশে বিধানসভা ভোটের আগে দিল্লি-বারাণসী রেল করিডরের ঘোষণা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী তথা বিজেপি সরকারের একটি মাস্টার স্ট্রোক বলেই মনে করছে রাজনৈতিক মহল৷

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

করোনা পরিস্থিতির জন্য থিয়েটার জগতের অবস্থা কঠিন। আগামীর জন্য পরিকল্পনাটাই বা কী? জানাবেন মাসুম রেজা ও তূর্ণা দাশ।