নয়াদিল্লি : একে গোটা দেশ আতঙ্কিত করোনা সংক্রমণের ভয়ে। তার ওপর অগ্নিকাণ্ড। দিল্লির তুঘলকাবাদে বস্তিতে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটল সোমবার রাতে। প্রায় ১২০০ ঝুপড়ি পুড়ে ছাই হয়ে গিয়েছে বলে খবর।

রাত একটা নাগাদ আগুন লাগে বলে জানিয়েছেন দক্ষিণ পূর্ব দিল্লির ডিসিপি রাজেন্দ্র প্রসাদ মিনা। তিনি জানান, সঙ্গে সঙ্গে ঘটনাস্থলে ছুটে যায় পুলিশ। তবে ক্ষতি এড়ানো যায়নি। প্রায় ১২০০ ঝুপড়ি নিশ্চিহ্ন হয়ে গিয়েছে।

ঘটনাস্থলে ছুটে যায় ৩০টি দমকলের ইঞ্জিন। দমকলের পক্ষ থেকে জানানো হয়, রাত ১২.১৫ নাগাদ আগুন লাগার খবর পান তাঁরা। তখনই ঘটনাস্থলে ছোটে ৩০টি ইঞ্জিন।

দমকলের দক্ষিণ দিল্লি জোনের ডেপুটি চিফ ফায়ার অফিসার এস এস তুলি জানান ৩০টি ইঞ্জিন ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। কিন্তু কীভাবে আগুন লাগল, তার কারণ এখনও জানতে পারেনি দমকল। ক্ষয়ক্ষতি হলেও কোনও প্রাণহানির খবর এখনও পর্যন্ত নেই বলে জানিয়েছে দমকল।

এদিকে, দিল্লি, পঞ্জাব, হরিয়ানা, চণ্ডীগড়, রাজস্থানে দু’দিন তাপপ্রবাহ চলবে হবে বলে সতর্কতা জারি করা হয়েছে। সোম ও মঙ্গলবারের জন্য এই রেড অ্যালার্ট জারি করা হয়েছে।

এছাড়া উত্তরপ্রদেশে অরেঞ্জ অ্যালার্ট জারি করা হয়েছে। দুপুর ১ টা থেকে বিকেল ৫ টা পর্যন্ত বাড়ি থেকে বেরতে নিষেধ করা হয়েছে। তাপপ্রবাহের প্রকোপ ওই সময়েই সবথেক বেশি থাকবে।

একাধিক জায়গায় এই তাপপ্রবাহ দেখা যাবে, কোথাও কোথাও সেটা চরমে পৌঁছবে। তাপমাত্রা ৪৭ ডিগ্রি পর্যন্ত পৌঁছতে পারে বলেও সতর্ক করেছেন তিনি। আকাশ থাকবে পরিস্কার ২০ কিলোমিটার বেগে গরম হাওয়া বইবে উত্তর ভারত জুঢ়ে। প্রচুর জল খাওয়ার ও ঠাণ্ডা জায়গায় থাকার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

তাপপ্রবাহ চলবে পঞ্জাব, ছত্তিসগড়, ওডিশা, গুজরাত, মধ্য মহারাষ্ট্র, অন্ধ্রপ্রদেশ, তেলেঙ্গানা, বিহার ও ঝাড়খণ্ডের বিভিন্ন অংশে।

কলকাতার 'গলি বয়'-এর বিশ্ব জয়ের গল্প