নয়াদিল্লি: রাজধানীর সংঘর্ষ নিয়ে এবার বিজেপিকে কাঠগড়ায় তুলল শিবসেনা। দলীয় মুখপত্র ‘সামনা’-য় বিজেপির কড়া সমালোচনা সেনার। কেন্দ্রীয় সরকারের ব্যর্থতার জেরেই দিল্লিতে গোষ্ঠী সংঘর্ষ চরম আকার নেয় বলে দাবি উদ্ধব ঠাকরের দলের। দিল্লির সাম্প্রতিক পরিস্থিতিতে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের ভূমিকারও কড়া সমালোচনা শিবসেনার।

সিএএ সমর্থনকারী ও বিরোধীদের সংঘর্ষে একটানা ৩ দিন ধরে উত্তপ্ত ছিল দিল্লি। উত্তর-পূর্ব দিল্লির জাফরাবাদ, মৌজপুর, চাঁদবাগ, সিলমপুর-সহ একাধিক এলাকায় হিংসার আগুন জ্বলে ওঠে। একের অপরের উপর লাঠি, রড নিয়ে চড়াও হয় দু’পক্ষ। একাধিক এলাকায় ওঠে গুলি চালানোর অভিযোগ। দিল্লির সংঘর্ষে এখনও পর্যন্ত ৩৮ জনের মৃত্য়ুর খবর মিলেছে। তিনশোর কাছাকাছি মানুষ আহত হয়ে বিবিন্ন হাসপাতালে ভরতি রয়েছেন। প্রায় ৭০ জনেরও বেশি মানুষ গুলিবিদ্ধ হয়ে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

দিল্লির এই পরিস্থিতিতে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের ভূমিকা নিয়ে কড়া সমালোচনা করেছে শিবসেনা। দিল্লি যখন জ্বলছে, তখন অমিত শাহের দেখা মেলেনি বলে দাবি করেছে শিবসেনা। শাহকে দুষে দলীয় মুখপত্র ‘সামনা’-য় সেনার কটাক্ষ, ‘দিল্লির সংঘর্ষ সবাইকে স্তব্ধ করে দিয়েছে। এই পরিস্থিতিতেও কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের কোথাও দেখা মেলেনি। দিল্লি যখন জ্বলছিল, তখন অমিত শাহ কোথায় ছিলেন?’।

‘সামনা’-য় আরও লেখা হয়, ‘দিল্লির রাস্তায় অজিত দোভালের দেখা মিলেছে। সাধারণ মানুষের সঙ্গে কথা বলতে দেখা গিয়েছে তাঁকে। কিন্তু কোথায় ছিলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী?’ দিল্লিতে যখন অশান্তির আগুন জ্বলছে, মোদী সরকারের মন্ত্রীরা তখন আহমেদাবাদে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে করমর্দন করছেন বলেও দলীয় মুখপত্রে কটাক্ষ করেছে শিবসেনা।

প্রশ্ন অনেক: দশম পর্ব

রবীন্দ্রনাথ শুধু বিশ্বকবিই শুধু নন, ছিলেন সমাজ সংস্কারকও