নয়াদিল্লি: নতুন করে সতর্কবার্তা জারি রাজধানীর জন্য৷ না, কোনও হামলার আশঙ্কা নয়, গরমে কাহিল নয়াদিল্লির বাসিন্দাদের জন্য তাপমাত্রা নিয়ে খারাপ খবর শোনাচ্ছে ভারতীয় আবহাওয়া দফতর৷ হাওয়া অফিস বলছে, দিল্লিতে লাল সতর্কতা জারি করা হয়েছে৷ তাপমাত্রা ছাড়াতে পারে ৪৫য়ের কোঠা৷ আগামী দুই দিনে এই তাপপ্রবাহ থেকে নিস্তার নেই দিল্লির৷

রবিবার দিল্লির তাপমাত্রা ছিল ৪৬.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস৷ সোমবার অবশ্য একটু নামে তাপমাত্রা৷ সারাদিনে ব্যারোমিটারের পারদ জানাচ্ছে ৪৫ ডিগ্রি তাপমাত্রার কথা৷ হাওয়া অফিস বলেছে, পরিষ্কার আকাশের জন্য তাপ বাড়ছে৷ তাপপ্রবাহ চলবে দিল্লি জুড়ে৷ দিল্লি, দক্ষিণ উত্তরপ্রদেশ. পূর্ব মধ্য প্রদেশ, হরিয়ানা, চণ্ডীগড় ও সৌরাষ্ট্রে তাপপ্রবাহের সতর্কতা জারি করা হয়েছে৷

সাধারণত তাপমাত্রা ৪৫ ডিগ্রির ওপরে হলে তাপপ্রবাহ শুরু হয়৷ দিল্লি সেই রেকর্ড ছাড়িয়েছে৷ পরপর দুদিন তাপমাত্রা এখানে ৪৫য়ের ঘরে ছিল৷ স্বাভাবিকভাবেই তাপপ্রবাহও বইতে শুরু করেছে৷ তবে কিছুটা সুখবর শুনিয়েছে হাওয়া অফিস৷ জানা গিয়েছে, জুন মাসের ১১ তারিখ থেকে ধুলোঝড় ও বজ্রবিদ্যুত সহ ঝোড়ো হাওয়া বইতে পারে৷ তাতে তাপমাত্রা কিছুটা হলেও নামবে৷ হতে পারে হালকা বৃষ্টিও৷

আরও পড়ুন : যোগী আদিত্যনাথের সঙ্গে দেখা করল না আলিগড়ের মৃত শিশুকন্যার পরিবার

এদিকে, প্রায় এক সপ্তাহ দেরিতে অবশেষে বর্ষা ঢুকেছে কেরলে। রবিবার পাকাপাকিভাবে বর্ষা ঢুকেছে সেখানে। ইতিমধ্যে কেরলের বিস্তীর্ণ এলাকায় বৃষ্টি শুরু হয়েছে। এরই মধ্যে ফের একবার ঘুর্ণিঝড়ের ভ্রূকুটি। ইতিমধ্যে এই বিষয়ে সতর্কতা জারি করেছে মৌসম ভবন। আবহাওয়াবিদদের পূর্বাভাস যেভাবে এটি শক্তি পাকাচ্ছে তাতে আগামী ২৪ ঘন্টা সাইক্লোনের রূপও নিতে পারে এই নিম্নচাপ।

যদিও এই সাইক্লোনের অভিমুখ কোন দিকে হবে তা নিয়ে এখনও নিশ্চিত ভাবে কিছু বলতে পারছেন না জাতীয় আবহাওয়া দফতরের আবহাওয়াবিদরা। দিল্লির আবহাওয়া অফিসের তরফে পূর্বাভাসে জানানো হয়েছে, দক্ষিণ-পূর্ব আরব সাগর ও তত্‍‌সংলগ্ন লাক্ষাদ্বীপের উপর এই নিম্নচাপটি তৈরি হয়েছে। আগামী ৪৮ ঘণ্টায় আরও গভীর নিম্নচাপে পরিণত হতে পারে। এরপর এটি ধীরে ধীরে উত্তর-উত্তরপশ্চিমে সরে তার পরের ২৪ ঘণ্টায় আরও শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড়ের আকার নিতে পারে বলে পূর্বাভাস মৌসম ভবনের।

আরও পড়ুন : মহিলার কাঁধে হাত দিয়ে অশ্লীল নাচ, বিতর্কে বিধায়ক

তবে তার আগে পর্যন্ত নিস্তার নেই উত্তর, মধ্য ও পশ্চিম ভারতের৷ মহারাষ্ট্র, গুজরাত ও মধ্যপ্রদেশের বাসিন্দাদের রাস্তায় বেরোনো নিয়ে সতর্কতা জারি করা হয়েছে৷ তাপমাত্রার পারদ ক্রমশ চড়ছে৷ মহারাষ্ট্রের পাঁচটি শহর ও মধ্যপ্রদেশের ৩টি শহরের তাপমাত্রা বিশ্বের চরম দশটি উত্তপ্ত এলাকারর সঙ্গে পাল্লা দিচ্ছে৷ এর মধ্যে রয়েছে আকোলা, চন্দ্রপুর, ব্রক্ষ্মপুরী, অমরাবতী, ওয়ার্ধা মত মহারাষ্ট্রের পাঁচটি শহর৷ এছাড়াও উত্তরপ্রদেশের বান্দা ও মধ্যপ্রদেশের হোসাঙ্গাবাদও এই তালিকায় চলে এসেছে৷