প্রতীকী ছবি

নয়াদিল্লি: টানা লকডাউনেও মেলেনি সুফল। রাজধানী দিল্লিতেও লাফিয়ে বাড়ছে সংক্রমণ। এরই মধ্যে শুরু হয়েছে আনলক. ১। লকডাউন কাটিয়ে ধীরে ধীরে ছন্দে ফেরার চেষ্টায় গোটা দেশ। তবে এরই মধ্যে দিল্লির সীমানাগুলি সিল করার ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়ালের। আপাতত এক সপ্তাহের জন্য দিল্লির সীমানাগুলি সিল করার সিদ্ধান্ত কেজরিওয়াল সরকারের।

স্বাস্থ্যমন্ত্রকের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী সোমবার দুপুর পর্যন্ত দিল্লিতে নোভেল করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ১৯ হাজার ৮৪৪। করোনায় দিল্লিতে এখনও পর্যন্ত ৪৭৩ জনের মৃত্যু হয়েছে।

প্রায় প্রতিদিনই দিল্লির বিভিন্ন এলাকায় থেকে করোনা সংক্রমিতের খোঁজ মিলছে। কন্টেনমেন্ট জোনগুলি থেকে এখনও করোনা আক্রান্তের হদিশ মিলছে। যা নিয়ে চূড়ান্ত উদ্বেগে কেজরিওয়াল প্রশাসন।

সেই কারণেই করোনার সংক্রমণে লাগাম পরাতে এবার এক সপ্তাহের জন্য দিল্লির সীমানাগুলি সিল করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে অরবিন্দ কেজরিওয়ালের সরকার। মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘এক সপ্তাহের জন্য দিল্লির সীমানাগুলি সিল করা হবে। শুধুমাত্র অত্যাবশ্যকীয় সামগ্রীর ক্ষেত্রে ছাড় মিলবে।’

করোনার সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ার নিরিখে দেশের মধ্যে তৃতীয় স্থানে রয়েছে রাজধানী দিল্লি। দেশের মধ্যে করোনার সবচেয়ে বেশি সংক্রমণ ছড়িয়েছে মহারাষ্ট্রে।

উদ্ধব ঠাকরের রাজ্যে নোভেল করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ৬৭ হাজার ৬৫৫। মহারাষ্ট্রের পরেই রয়েছে তামিলনাড়ু। সেরাজ্যে এখনও পর্যন্ত করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ২২ হাজার ৩৩৩।

কলকাতার 'গলি বয়'-এর বিশ্ব জয়ের গল্প