ফাইল ছবি।

নয়াদিল্লি: রাজধানী দিল্লিতে রীতিমতো ভয়ঙ্কর পরিস্থিতি তৈরি করেছে নোভেল করোনাভাইরাস। সংক্রমণের দ্বিতীয় ধাক্কায় বেসামাল দিল্লি। গত ২৪ ঘন্টায় রাজধানীতে করোনা আক্রান্ত ৮০০০-এরও বেশি মানুষ। এই পরিস্থিতিতে এবার দিল্লিতে ছট পুজোর দিনে ঘাটগুলিতে ধর্মীয় রীতি-রেওয়াজ পালনে নিষেধাজ্ঞা জারি সরকারের।

মঙ্গলবার দিল্লিতে রেকর্ড সংক্রমণ ছড়িয়েছিল। একসঙ্গে ৭৮৩০ জন একদিনে আক্রান্ত হয়েছিলেন করোনায়। বুধবার সেই রেকর্ডও ছাপিয়ে গেল।

বুধবার দিল্লিতে ৮৫৯৩ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। মৃত্যু হয়েছে ৮৫ জনের। যা কিনা দিল্লিতে একদিনে করোনায় মৃত্যুর হিসেবে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ সংখ্যা। এর আগে ১৬ জুন দিল্লিতে একদিনে করোনায় মৃত্যু হয়েছিল ৯৩ জনের।

সব মিলিয়ে রাজধানীর করোনা পরিস্থিতি ভয়াবহ আকার নিয়েছে। বর্তমানে দিল্লিতে মোট করোনা সংক্রমিতের সংখ্যা বেড়ে ৪ লক্ষ ৫৯ হাজার ৯৭৫।

এর মধ্যে অ্যাক্টিভ করোনা কেস ৪২ হাজার ৬২৯টি। উৎসবের মরশুমে দিল্লিতে লাগামছাড়া সংক্রমণ। বিশেষজ্ঞদের আশঙ্কা, শীত আরও বাড়লে সংক্রমণ আরও বাড়তে পারে। দিল্লির স্বাস্থ্য ব্যবস্থা ভেঙে পড়ারও আশঙ্কা করছেন কেউ-কেউ।

করোনা-বিপদের আশঙ্কা করেই এবার ছট পুজোয় ঘাটগুলিতে ধর্মীয় রীতি-রেওয়াজ বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছে দিল্লির সরকার। স্বাস্থ্যমন্ত্রী সত্যেন্দ্র জৈন জানিয়েছেন, রাজধানীর করোনা পরিস্থিতির ভয়াবহতা পর্যালোচনা করেই চলতি বছরে ছট পুজোয় ঘাটগুলিতে ভিড় এড়াতে রীতি-রেওয়াজ পালনে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে দিল্লির সরকার।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

কোনগুলো শিশু নির্যাতন এবং কিভাবে এর বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানো যায়। জানাচ্ছেন শিশু অধিকার বিশেষজ্ঞ সত্য গোপাল দে।