নয়াদিল্লি: আইনি গেরোয় এবার দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল। তাঁকে সমন পাঠাল দিল্লি আদালত। নির্বাচন কমিশনে তথ্য গোপন করা এবং মিথ্যা তথ্য দেওয়ার অভিযোগেই দিল্লির মুখ্যমন্ত্রীকে সমন পাঠাল নগর দায়রা আদালত।

আদালত সূত্রের খবর, ২০১৩ সালে দিল্লি বিধানসভা নির্বাচনের সময় অরবিন্দ কেজরিওয়াল নির্বাচন কমিশনের কাছে ভুল তথ্য পেশ করেছিলেন বলে অভিযোগ। মনোনয়নের সময় এফিডেভিটে কেজরিওয়াল তাঁর বাড়ির আসল ঠিকানা এবং সম্পত্তির সঠিক পরিমাণ দেননি বলে অভিযোগ। এর ভিত্তিতেই এদিন অরবিন্দ কেজরিওয়ালকে নোটিশ পাঠালেন দিল্লির নগর-দায়রা বিচারক স্নিগ্ধা সারভারিয়া। জনপ্রতিনিধি আইন এবং সংবিধানের ১৭৭ ধারা অনুসারে কেজরিওয়ালের বিরুদ্ধে মামলা দায়েরও হয়েছে।

জানা গিয়েছে, মৌলিক ভারত ট্রাস্ট নামে একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের অভিযোগের ভিত্তিতেই এদিন অরবিন্দ কেজরিওয়ালকে নোটিশ দিল আদালত। ২০১৩ নির্বাচনের সময় অরবিন্দ কেজরিওয়াল ইচ্ছাকৃতভাবে মনোনয়নপত্রের এফিডেভিটে তাঁর বাড়ির ঠিকানা এবং নিজস্ব সম্পত্তির পরিমাণ গোপন করেছিলেন বলে মৌলিক ভারত ট্রাস্টের অভিযোগ।

সপ্তম পর্বের দশভূজা লুভা নাহিদ চৌধুরী।