নয়াদিল্লি: দিল্লিতে ফের স্পা-এর আড়ালে চলা নানান অশ্লীল কাজকর্মের পর্দাফাস করল পুলিশ। দিল্লি কমিশন ফর ওমেন দিল্লির তিলক নগর এলাকায় রমরমিয়ে চলা এই ব্যবসার পর্দা ফাঁস করে।

জানা গিয়েছে, ১৮১ নম্বরে এক অচেনা ব্যক্তি ফোন করে জানায় করোনার মধ্যেও স্পা-র আড়ালে রম্রমিয়ে চলছে দেহ ব্যবসা। এরপরেই এঘটনার কথা ডিসিডব্লিউ চেয়ারপারসন স্বাতী মালিওয়ালের নজরে আনেন কিরণ নেগি নামে এক সদস্য। স্বাতী মালিওয়াল তাত্ক্ষণিকভাবে এর তদন্তের জন্য একটি দল গঠন করে।

পুলিশ জানিয়েছে, ‘অ্যামেজিং স্পা’ তে তদন্ত চলাকালীন প্রচুর ব্যবহৃত কনডম উদ্ধার করে পুলিশ। রিসেপশনিস্টকে মালিককে ফোন করতে বলা হয়, তবে তদন্তের কথা শোনার পর থেকেই ফোন বন্ধ করে দেন মালিক।

আরও পড়ুন- চিন একজন যুদ্ধবাজ প্রতিবেশী, তাও নিয়ন্ত্রণরেখায় শান্তি ফিরুক : মাইক পম্পেও

পুলিশি হানায় আটক হওয়া সমস্ত গ্রাহককে থানায় নিয়ে যাওয়া হয়, পাশাপাশি সেখানকার সিসিটিভি ফুটেজও নিয়ে নিয়েছে পুলিশ। স্পা-তে কাজ করা অন্য মেয়েদেরও বয়ান নেওয়া হয়েছে।

আইপিসি ২৬৬ এবং ২৭০ এর আওতায় কটি এফআইআরও নথিভুক্ত করা হয়েছে এবং তদন্ত চলছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। অন্যান্য স্পা মালিকরা এই ঘটনার কথা জানতে পেরে তত্ক্ষণাত তাদের দোকান বন্ধ করে দিয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

ডিসিডব্লিউ-র প্রধান স্বাতী মালিওয়াল জানিয়েছেন, ওই দেহব্যবসার চক্রের পর্দাফাস করা হয়েছে। রাজধানীটির প্রতিটি কোণে এবং কোণে এই কেন্দ্রগুলি কীভাবে ছত্রাকের মতো গজিয়ে উঠছে তা নিয়ে রীতিমতো বিস্ময় প্রকাশ করেছেন তিনি।

স্বামীর সঙ্গে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে বস্ত্র ব্যবসাকে অন্যমাত্রা দিয়েছেন।'প্রশ্ন অনেকে'-এ মুখোমুখি দশভূজা স্বর্ণালী কাঞ্জিলাল I