আবুধাবি: প্লে-অফের প্রথম তিনটি স্থান কার্যত নিশ্চিত। কিন্তু চতুর্থ স্থানের জন্য র‍্যাট-রেস শুরু হয়ে গিয়েছে ইতিমধ্যেই। সেই দৌড়ে কলকাতা নাইট রাইডার্সের সঙ্গে দারুণভাবে দৌড়ে রয়েছে সানরাইজার্স হায়দরাবাদ এবং কিংস ইলেভেন পঞ্জাব।

শনিবাসরীয় আবুধাবিতে নাইটদের বিরুদ্ধে জিতলে দিল্লি ক্যাপিটালস প্লে-অফ নিশ্চিত করবে। অন্যদিকে প্লে-অফের লক্ষ্যে এগিয়ে যেতে দিল্লি ম্যাচ ভীষণ গুরুত্বপূর্ণ পার্পল ব্রিগেডের কাছে।

সুদূর মরুশহরে ম্যাচ জিতে কলকাতাবাসীকে মহাষ্টমীর উপহার কী দিতে পারবে মর্গ্যান বাহিনী, নজর সেদিকেই। যদিও আবুধাবিতে শনিবার ডাবল হেডারের প্রথম ম্যাচে টস হারল কলকাতা নাইট রাইডার্স। টস জিতে কলকাতা নাইট রাইডার্সকে প্রথমে ব্যাটিং’য়ের আমন্ত্রণ জানাল লিগ টেবিলে দ্বিতীয়স্থানে থাকা শ্রেয়স আইয়ারের দিল্লি ক্যাপিটালস। পিচে ঘাস রয়েছে একইসঙ্গে আর্দ্রতাও যথেষ্ট।

এমতাবস্থায় দলের পেস বিভাগ বাইশ গজে যাতে আগুন ঝরাতে পারে, সেকথা মাথায় রেখেই প্রথমে বোলিং’য়ের সিদ্ধান্ত নিলেন দিল্লি অধিনায়ক শ্রেয়স। এই মুহূর্তে টুর্নামেন্টের পার্পল ক্যাপ হোল্ডার কাগিসো রাবাদার পাশে এই ম্যাচে দলে ফিরলেন চলতি টুর্নামেন্টে ভয়ঙ্কর ফর্মে বিরাজ করা আরেক প্রোটিয়া পেসার অ্যানরিচ নর্তজে। এছাড়া অফ ফর্মে থাকা পৃথ্বী শ’র পরিবর্তে একাদশে ফের সুযোগ হয়েছে আজিঙ্কা রাহানের। গত দু’ম্যাচে টানা শতরান হাঁকিয়ে আইপিএল নজির গড়া ধাওয়ানের সঙ্গে ওপেনে সঙ্গী হবেন রাহানে।

অন্যদিকে নাইট শিবিরে কামব্যাক করতে চলেছেন সুনীল নারিন। আইপিএলের সাসপেক্ট বোলিং অ্যাকশন কমিটির থেকে ক্লিনচিট পাওয়ার পর এই প্রথম মাঠে নামতে চলেছেন তিনি। টম ব্যান্টনের পরিবর্তে দলে এলেন এই ক্যারিবিয়ান।

এছাড়া কমলেশ নাগারকোটি এলেন চায়নাম্যান কুলদীপ যাদবের জায়গায়। গত ম্যাচে আরসিবির কাছে লজ্জাজনক হারের পর নাইটরা এই ম্যাচ জিতে ঘুরে দাঁড়াতে পারে কীনা, এখন সেটাই দেখার। একইসঙ্গে প্লে-অফের প্রশ্নেই এই ম্যাচ ভীষণই অর্থবহ পার্পল ব্রিগেডের কাছে।

একনজরে কলকাতা নাইট রাইডার্স একাদশ: শুভমন গিল, রাহুল ত্রিপাঠী, নিতিশ রানা, ইয়ন মর্গ্যান (অধিনায়ক), দীনেশ কার্তিক (উইকেটরক্ষক), সুনীল নারিন, প্যাট কামিন্স, লকি ফার্গুসন, কমলেশ নাগারকোটি, প্রসিদ্ধ কৃষ্ণা, বরুণ চক্রবর্তী।

একনজরে দিল্লি ক্যাপিটালস একাদশ: আজিঙ্কা রাহানে, শিখর ধাওয়ান, শ্রেয়স আইয়ার (অধিনায়ক), ঋষভ পন্ত (উইকেটরক্ষক), মার্কাস স্টোইনিস, শিমরন হেটমেয়ার, অক্ষর প্যাটেল, রবি অশ্বিন, কাগিসো রাবাদা, তুষার দেশপান্ডে, অ্যানরিচ নর্তজে।

জেলবন্দি তথাকথিত অপরাধীদের আলোর জগতে ফিরিয়ে এনে নজির স্থাপন করেছেন। মুখোমুখি নৃত্যশিল্পী অলোকানন্দা রায়।