মুম্বই: আইপিএল নিয়ে বোর্ড প্রেসিডেন্ট সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের ইতিবাচক মন্তব্যের পর তোড়জোড় শুরু করে দিল মু্ম্বই ইন্ডিয়ান্স৷ আইপিএলের প্রথম দল হিসেবে লকডাউন পরবর্তী প্র্যাকটিস শুরু করতে চলেছে গতবারের চ্যাম্পিয়নরা৷

মুম্বই ইন্ডিয়ান্সের পক্ষ থেকে জানিয়ে দেওয়া হল, আগামী বৃহস্পতিবার থেকেই অনুশীলন চালু করেছে তারা। রিলায়েন্স স্টেডিয়ামে ক্রিকেটাররা অনুশীলন করবেন। ক্যাপ্টেন রোহিত শর্মা, হার্দিক পান্ডিয়া, ক্রুনাল পান্ডিয়া, সূর্যকুমার যাদব, আদিত্য তারে, ধওয়াল কুলকার্নির এরা প্রত্যেকেই মুম্বইয়ে থাকেন৷ সুতরাং এরা দলের প্রস্তুতি শিবিরে যোগ দিতেই পারেন৷ তবে প্রস্তুতি শিবিরে যোগ দেওয়ার জন্য কোনও ক্রিকেটারকে জোড় করা হবে না৷ কারণ ফ্র্যাঞ্চাইজির তরফে পরিষ্কার জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, ক্রিকেটারদের অনুশীলনে আসার সিদ্ধান্ত সংশ্লিষ্ট ক্রিকেটারের উপরেই ছেড়ে দেওয়া হয়েছে৷

প্রাক্তন নাইট তারকা যিনি মুম্বইয়ের ডানহাতি ব্যাটসম্যান গত বছর মুম্বই ইন্ডিয়ান্সে যোগ দেওয়া সূর্যকুমার যাদব জানিয়ে দিয়েছেন, তিনি বৃহস্পতিবার অনুশীলনে যোগ দেবেন৷ সূর্যকুমার ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস-কে জানান, ‘আমাদের অনুশীলনে নামার সুযোগ করে দিয়েছে মুম্বই ইন্ডিয়ান্স। সুতরাং আড়াই মাস বাড়িতে বসে থাকার পর অনুশীলনে নামার জন্য মুখিয়ে রয়েছি। হাতে ব্যাট ধরার মত ভালো অনুভূতি আর কোথাও নেই। গত দু’মাস ক্রিকেটকে ব্যাপক মিস করেছি।’

মুম্বইয়ের এই ডানহাতি ব্যাটসম্যান আরও জানান, ফ্র্যাঞ্চাইজির পক্ষ থেকে সমস্ত সতর্কতা নেওয়ার কথা জানানো হয়েছে। তিনি বলেন, ফ্র্যাঞ্চাইজির তরফে সামাজিক দূরত্ব মেনে চলার মত সতর্কতা অবলম্বন করে চলার নির্দেশিকা জানানো হয়েছে। তাছাড়া বোলিং মেশিনের মাধ্যমে অনুশীলন করা হবে, তাই বলে লালা লাগানোর কোনও সম্ভাবনা থাকছে না৷’

বিশ্বকাপ আয়োজনের সিদ্ধান্ত নিয়ে আইসিসি’র গড়িমসি দেখে আসরে নামে বিসিসিআই। টি-২০ বিশ্বকাপ কার্যত চলতি বছর হচ্ছে না৷ এমনই দেওয়াল লিখন আঁচ করে আইপিএল আয়োজনের প্রস্তুতি শুরু করে দিল সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় নেতৃত্বাধীন বোর্ড। টাইমস অফ ইন্ডিয়া-র এক রিপোর্ট অনুযায়ী আইপিএল আয়োজনের ব্যাপারে সম্প্রতি রাজ্য ক্রিকেট সংস্থাগুলোকে খোলা চিঠি প্রদান করেছেন বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট। সেখানে স্পষ্টভাবে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে খুব শীঘ্রই ফ্র্যাঞ্চাইজি টুর্নামেন্ট নিয়ে সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হবে।

রেভিনিউ কম হবে জেনেও খালি স্টেডিয়ামেই টুর্নামেন্ট আয়োজনে তৈরি বিসিসিআই। সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় তাঁর চিঠিতে লিখেছেন, ‘দর্শকশূন্য স্টেডিয়ামে হলেও বিসিসিআই চলতি বছর আইপিএল আয়োজন করার ব্যাপারে সম্ভাব্য সমস্ত বিষয়গুলো নিশ্চিত করতে চাইছে। অনুরাগী, ফ্র্যাঞ্চাইজি, ব্রডকাস্টার, স্পনসর সহ অন্যান্য স্টকহোল্ডাররাও অধীর আগ্রহে আইপিএলের দিকে তাকিয়ে আছে।’

চিঠিতে আরও জানানো হয়েছে, ‘ভারত এবং অন্যান্য দেশের অসংখ্য ক্রিকেটার আইপিএলে অংশগ্রহণ করতে চেয়ে আগ্রহ প্রকাশ করেছে। আমরা ভীষণভাবে আশাবাদী। বিসিসিআই খুব শীঘ্রই আইপিলের ভবিষ্যৎ নির্ধারণ করবে।’

প্রশ্ন অনেক: তৃতীয় পর্ব