বেঙ্গালুরু: সুনীল ছেত্রী, গুরপ্রীত সিং সান্ধু, উদান্তা সিং, আশিক কুরুনিয়ানের মত জাতীয় দলের তারকারা তো ছিলেনই, সঙ্গে আকর্ষণের কেন্দ্রবিন্দু ছিলেন নর্থ-ইস্টের নবাগত বিদেশি ঘানার বিশ্বকাপার আসামোয়া গিয়ান কিংবা দল বদলে চেন্নাইয়িন এফসি থেকে বেঙ্গালুরু এফসিতে যোগদান করা ব্রাজিল তারকা রাফায়েল অগাস্তোরা। কিন্তু উত্তেজনার সঙ্গে পাল্লা দিয়ে হাই-প্রোফাইল ম্যাচের ফলাফল হতাশ করল অনুরাগীদের। নর্থ-ইস্ট ইউনাইটেডের বিরুদ্ধে ড্র দিয়ে আইএসএল অভিযান শুরু করল ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়ন বেঙ্গালুরু এফসি।

কান্তিরাভায় বর্ষণসিক্ত ম্যাচে এদিন গোলের খাতা খুলতে ব্যর্থ দু’দলই। অর্থাৎ গোলশূন্য ফলাফলেই খেতাব ধরে রাখার অভিযান শুরু হল সুনীলদের। প্রাথমিক পর্যায়ে নিজেদের অর্ধে সুনীল-কুরুনিয়ানদের আক্রমণ সামলাতে ব্যস্ত থাকলেও ম্যাচে এদিন গোল লক্ষ্য করে প্রথম শটটি নেয় নর্থ-ইস্ট। ২১ মিনিট বিশ্বকাপার গিয়ানের থেকে বল পেয়ে বেঙ্গালুরু ডিফেন্ডার জুয়াননকে ড্রিবলে পরাস্ত করেন উরুগুয়ের মার্টিন চাভেস। এরপর গোল লক্ষ্য করে তাঁর শট বাঁ-দিকে ঝাঁপিয়ে পড়ে দুরন্ত ক্ষিপ্রতায় বাঁচান বেঙ্গালুরু দুর্গের শেষ প্রহরী গুরপ্রীত সান্ধু।

কয়েক মিনিট বাদে যদিও রাফায়েল অগাস্তোর বাড়ানো বল থেকে বেঙ্গালুরুকে এগিয়ে দেওয়ার অবস্থায় পৌঁছে গিয়েছিলেন উদান্তা সিং। কিন্তু বাউন্ডুলে ছেলের মতো হেলায় সেই সুযোগ নষ্ট করেন জাতীয় দলের নির্ভরযোগ্য উইঙ্গার। উলটোদিকে ফাঁকা গোলের সামনে বল পেয়ে ফের হেলায় সুযোগ হারান নর্থ-ইস্ট স্ট্রাইকার মার্টিন চাভেস। সবমিলিয়ে গোলশূন্য অবস্থায় প্রথমার্ধ শেষ হওয়ার পর দ্বিতীয়ার্ধে কান্তিরাভায় গোলের প্রতীক্ষায় প্রহর গুনছিলেন অনুরাগীরা।

প্রথমার্ধের তুলনায় দ্বিতীয়ার্ধে খেলায় গতিও ফেরে অনেকটা। ৫২ মিনিটে বেঙ্গালুরু ডিফেন্সের ফাঁক খুঁজে সতীর্থ গিয়ানের উদ্দেশ্যে বক্সে গোলের ঠিকানা লেখা বল সাজিয়ে দেন চাভেস। কিন্তু গুরপ্রীতকে দর্শক বানিয়ে গিয়ানের বাঁ-পায়ে নেওয়া শট ক্রসবারে লেগে প্রতিহত হয়। পালটা গোলের কাছে পৌঁছে গিয়েও খালি হাতে ফেরেন বেঙ্গালুরু অধিনায়ক। পাহাড়ি দলটির তিনকাঠির নীচে দাঁড়িয়ে নিশু কুমারের জোরালো শট বাঁচান অভিজ্ঞ শুভাশিস রায়চৌধুরী।

গোলের লক্ষ্যে বিএফসি কোচ মাঠে নামান ইউজেনসন লিংডো এবং কিন লুইসকে। অন্যদিকে গোলের খাতা খুলতে তিনটি পরিবর্তন আনেন নর্থ-ইস্ট ইউনাইটেড কোচ রবার্ট জার্নিও। তবে শেষ অবধি খেলার ফলাফলের কোনওরকম পরিবর্তন হয়নি। অর্থাৎ, অভিযান শুরুর ম্যাচে এক পয়েন্ট নিয়েই সন্তুষ্ট থাকতে হয় দু’দলকে। উল্লেখ্য, রবিবার উদ্বোধনী ম্যাচে এটিকে’কে ২-১ গোলে হারিয়ে অভিযান শুরু করে কেরালা ব্লাস্টার্স।