corona virus -2

নয়াদিল্লি: সরকারি অনেক দফতরে থাবা বসিয়েছে করোনা ভাইরাস, সেই তালিকা থেকে বাদ পরল না প্রতিরক্ষামন্ত্রকও। এবার করোনা আক্রান্ত ডিফেন্স সেক্রেটারি অজয় কুমার।

বুধবার করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট পজিটিভ এলে ব্যপক পরিমাণে কনট্যাক্ট ট্রেসিংয়ের কাজ শুরু হয়েছে, দেখা হচ্ছে কারা কারা সংস্পর্শে এসেছিলেন, তেমনটাই জানা গিয়েছে সরকারি সূত্রে। আরও জানা গিয়েছে, অজয় কুমার বর্তমানে সুস্থ আছেন এবং তিনি হোম-কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন।

এই ঘটনার পরে সাউথ ব্লকে রাইসিনা হিলসে প্রতিরক্ষামন্ত্রকের সদর দফতরে কমপক্ষে ৩৫ জনকে হোম-কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে। বুধবার এই খবর জানতে পারার পরেই এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

তবে সরকারিভাবে অজয় কুমার কেমন আছেন তা কিছু জানানো হয়নি। প্রতিরক্ষামন্ত্রকের মুখপাত্র এ বিষয়ে কোনও মন্তব্য করতে রাজি হননি।

এও জানা গিয়েছে, ডিফেন্স সেক্রেটারি অজয় কুমার করোনা আক্রান্ত হওয়ার পর থেকেই প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং অফিসে আসেননি।

সাউথ ব্লকের ফার্স্ট ফ্লোরে প্রতিরক্ষামন্ত্রী, প্রতিরক্ষা সচিব এবং সেনা প্রধান এবং নৌসেনা প্রধানের অফিস। তবে কনট্যাক্ট-ট্রেসিং এবং কোয়ারেন্টাইন করার নিয়মাবলী সব মেনে চলা হচ্ছে।

জুনের ১ তারিখ, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকে কর্মরত এল সেন্ট্রাল রিসার্ভ পুলিশ ফোরসের ডেপুটি ইন্সপেক্টর জেনারেল কোভীড-১৯ পরীক্ষা করলে রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে।

অন্য যে দুই’জন ওই ডেপুটি জেনারেলের সঙ্গে কাজ করছিলেন তাঁদের কোয়ারেন্টাইন করা হয়েছে, মেনে চলা হচ্ছে সবরকম বিধিনিষেধ, তেমনই জানা গিয়েছে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক সূত্রে।

অন্যদিকে, করোনা আক্রান্ত হয়েছেন রেল কর্মী ও আধিকারিকরা। ৮০ জন আধিকারিক ও কর্মী করোনা আক্রান্ত হয়েছেন বলে জানা গিয়েছে। সাদার্ন রেলওয়ের চেন্নাই ডিভিশনের আধিকারিকর হিসেবে কর্মরত বলেই জানা যায়।

এদের মধ্যে রয়েছে রেলওয়ে প্রোটেকশন ফোর্স বা আরপিএফের জওয়ানরাও। এছাড়াও ডিভিশনের শীর্ষ আধিকারিকরাও করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। প্রসঙ্গত, মে মাসের শুরুদিকেই জানা গিয়েছিল জওয়ানদের মধ্যে সংক্রমণ শতাধিক ছড়িয়ে গিয়েছে।

পচামড়াজাত পণ্যের ফ্যাশনের দুনিয়ায় উজ্জ্বল তাঁর নাম, মুখোমুখি দশভূজা তাসলিমা মিজি।