নয়াদিল্লি: ভারতের প্রতিরক্ষার জন্য একগুচ্ছ বড় ঘোষণা করলেন প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিং।

রবিবার সকালেই এই ঘোষণার কথা জানানো হয় প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের তরফ থেকে। এরপর একগুচ্ছ ট্যুইটে সেসব ঘোষণা করেন রাজনাথ সিং।

এবার প্রতিরক্ষাতেও আত্মনির্ভরতার পথে ভারত। প্রত্যেক বছর কোটি কোটি টাকা ব্যয়ে বিদেশ থেকে আনা হয় একাধিক প্রতিরক্ষা সরঞ্জাম। এবার ভারতেই সেসব তৈরি করার বার্তা দিলেন প্রতিরক্ষামন্ত্রী। ইতিমধ্যেই ১০১ টি সরঞ্জামের তালিকা তৈরি করা হয়েছে, যা অন্য দেশ থেকে আমদানি করা হবে না বলে জানা গিয়েছে।

কতদিন পর্যন্ত এই আমদানি বন্ধ থাকবে, তা নির্দিষ্টকরা হয়নি। অর্থাৎ অনির্দিষ্টকালের জন্য অস্ত্র আমদাবিবন্ধ করার পথে ভারত। রাজনাথ সিং জানিয়েছেন, ভারতীয় সেনাবাহিনী, সরকারি ও বেসরকারি সংস্থা এবং স্টেক হোল্ডারদের সঙ্গে দফায় দফায় বৈঠকের পর সেই তালিকা তৈরি করেছে প্রতিরক্ষা মন্ত্রক।

তিনি আরও জানান, ২০১৫ থেকে ২০২০-র মধ্যে তিন বাহিনীতে এরকম অন্তত সাড়ে ৩ লক্ষ কোটি টাকার অস্ত্র ও সরঞ্জাম আমদানি করা হয়েছে। এবার এই সিদ্ধান্তের পর ভারতীয় সংস্থাই ৪ লক্ষ কোটি টাকার বরাত পাবে আগামী ৬-৭ বছরে।

ওই ১০১ টি জনিসের তালিকায় রয়েছে আর্টিলারি গান, কমব্যাট হেলিকপ্টার, অ্যাসল্ট রাইফেল, কভার্ট, রাডার, সশস্ত্র গাড়ি, ট্রান্সপোর্ট এয়ারক্রাফট সহ একাধিক উচ্চপ্রযুক্তিসম্পন্ন অস্ত্র। এবার থেকে এসবই তৈরি হবে ভারতে।

উল্লেখ্য, দিন কয়েক আগেই দীর্ঘ ১৮ বছরের অপেক্ষার পরে ফ্রান্স থেকে ভারতের কাছে এসেছে বহুপ্রতীক্ষিত রাফায়েল। ৭,৩৬৪ কিলোমিটার পথ পাড়ি দিয়ে এই ফাইটার জেটগুলি এসে পৌঁছেছে। ৩৬টি সুপারসোনিক ওমনিরোল কমব্যাট এয়ারক্রাফটের মধ্যে এই ৫টি ফাইটার জেট প্রথম পর্যায়ে পাঠানো হয়েছে।

ভারত ও ফ্রান্সের চুক্তি অনুসারে মোট ৩৬টি ফাইটার জেট হাতে পাবে ভারত। ফলে ৩৬জন বায়ুসেনা পাইলটকে রাফায়েল চালানোর প্রশিক্ষণ নিতে হবে। এর মধ্য়ে বেশিরভাগ পাইলটকেই ফ্রান্সে গিয়ে প্রশিক্ষণ নিতে হবে বলে খবর। কয়েকজনকে ভারতে প্রশিক্ষণ নিতে হবে।

পপ্রশ্ন অনেক: নবম পর্ব

Tree-bute: আমফানের তাণ্ডবের পর কলকাতা শহরে শতাধিক গাছ বাঁচাল যারা