মুম্বই: ছপক ছবিকে ঘিরে ফের বিতর্কে জড়ালেন দীপিকা পাডুকোন। ছপক ছবির জন্য বিভিন্ন ক্যাম্পেন করেছেন দীপিকা। প্রকাশ্যে এসেছে একাধিক অ্যাসিড আক্রান্তের কথা। কিন্তু এবার এই কারণেই বিতর্কে জড়ালেন দীপিকা।

ছপক ছবিতে অ্যাসিড আক্রান্ত মালতীর চরিত্রে দেখা গিয়েছে অভিনেত্রীকে। এই চরিত্রটি বাস্তবের অ্যাসিড হামলার শিকার লক্ষ্মী আগরওয়ালকে নিয়ে তৈরি। টিকটক ভিডিওর মাধ্যমে অ্যাসিড আক্রান্ত মালতীর পুড়ে

যাওয়া মুখের ছবি তুলে ধরার চ্যালেঞ্জ জানিয়েছেন দীপিকা। ছপক ছবির প্রোমোশন হিসেবেই এই চ্যালেঞ্জ দিয়েছেন অভিনেত্রী। কিন্তু নেটিজেনরা মোটেই পছন্দ করেননি দীপিকার এই চ্যালেঞ্জ।

একটি টিকটক ভিডিওয় দেখা যাচ্ছে, দীপিকা এক মেক আপ আর্টিস্টের অ্যাকাউন্ট থেকে তাঁর তিনটি পছন্দের লুক তুলে ধরার জন্য চ্যালেঞ্জ জানিয়েছেন। যার মধ্যে রয়েছে ওম শান্তি ওম-এর শান্তি, পিকু ছবির পিকু ও ছপকের মালতী।

ভিডিওটিতে মেকআপ আর্টিস্ট ফেবি মেক আপের সাহায্যে তাঁর তিনটে লুক তুলে দেখিয়েছেন। এই ভিডিওটিই টুইটারে শেয়ার করা হয়। তারপরেই বিতর্কের ঝড় ওঠে।

নেটিজেনদের দাবি, ছবির প্রচারের জন্য অ্যাসিড আক্রান্তের লুককে এভাবে ব্যবহার করা মোটেই শোভনীয় না। দীপিকা সব সময়েই শক্তিশালী পদক্ষেপ করেন। তাই তাঁর থেকে এমন একটি প্রচারের ধারণা আশা করা যায়

না বলেই জানান নেটিজেনকা। কারণ একজন অ্যাসিড হামলার শিকার বিভিন্ন রকমের যন্ত্রণার মধ্যে দিয়ে যান। তাই তাঁর এই লুককে মেক আপের মাধ্যমে তুলে ধরে টিকটকে প্রকাশ করা মোটেই ঠিক নয় বলে তাঁদের দাবি। এতে অনেকটাই ছোট করা হয় অ্যাসিড আক্রান্তদের।

প্রসঙ্গত, গত ১০ জানুয়ারি মুক্তি পেয়েছে দীপিকা অভিনীত ‘ছপক’। যে ছবির পরিচালনা করেচেন পরিচালক মেঘনা গুলজার এই ছবি মুক্তির আগেই জওহরলাল নেহরু বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রেসিডেন্ট ঐশী ঘোষের উপরে

হামলা হয়। এর পরেই আন্দোলন ছাত্রছাত্রীদের সঙ্গে দেখা করতে দীপিকা পৌঁছে যান জেএনইউ-তে। এর পরেই গেরুয়া শিবির দীপিকাকে নিশানা করে দীপিকার ছবি বয়কট করার দাবি করে। যদিও সেসবে কান দেননই অভিনেত্রী। ছপক মুক্তি পেয়েছে। এবং প্রশংসিত হয়েছে তাঁর অভিনয়ও।