মেলবোর্ন: গ্ল্যামারের ছটায়, ফ্যাশনের ফিরিস্তি আর সেরা সম্মান প্রদর্শনের মধ্য দিয়ে উৎসবের আমেজে মেলবোর্নে এবারের মতো শেষ হল ‘ইন্ডিয়ান ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল অফ মেলবোর্ন। এবছর ইন্ডিয়ার সেরা ছবির সম্মান গেল ‘অমিতাভ-দীপিকা-সুজিত’-এর ঝুলিতে। আইএফএফএম ২০১৫-তে সেরা ভারতীয় ছবির তকমা পেল ‘পিকু’।
 

তবে শুধু সেরা ছবি নয়। ‘পিকু’-এর দৌলতে শ্রেষ্ঠ পরিচালকের সম্মানটাও এবার সুজিতের ঘরে। অন্যদিকে ইরফানের হাতে সেরা অভিনেতার ট্রফি। তবে ছিটকে গিয়েছেন দীপিকা। ‘ককটেল গার্ল’-কে জোরদার টক্কর দিয়ে বিজয়ের মুকুট পরলেন ভূমি পাদনেকা। ‘দম লাগা কা হাইসা’ ছবির জন্য সেরা অভিনেত্রী তকমা পেলেন বলিউডের নবাগতা এই অভিনেত্রী।
 

‘পিকু’ নিছকই বাবা মেয়ের অতি সাধারণ একটি গল্প। যেখানে না রয়েছে ঝকঝকে লোকেশন, না আইটেম সং, না নিত্য নতুন স্টাইলের বাহার। শুধু আছে নিটোল একটি গল্প। যা মন ছুঁয়ে যায় দর্শকদের। বিশেষ করে এই ছবি থেকে আলাদা এক প্রাপ্তি রয়েছে বাঙালিদের। বলিউডি চেনা ফর্মূলার বাইরে গিয়ে এ ছবিতে খেলে গিয়েছে মধ্যবিত্তেরর আলোছায়া।

বিনোদনের আরও খবর:

ফের চোট শাহরুখের, এবারের সেট ‘FAN’

‘ফ্যান্টম’ সুপারহিট জন্মদিনে সইফের আশা

জন্মদিনে মণীষার মুখে বিজয়িনীর হাসি

স্বাধীনতার ‘উইশে’ বলিউডের ট্যুইট-ঝড়

শোলের স্মৃতির পাতায় চোখ রাখলেন বিগ-বি

 

 

 

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.