নয়াদিল্লি: দেশ জুড়ে করোনা আতঙ্কের জেরে চলছে লক ডাউন। কেন্দ্রীয় সরকারের তরফে জানানো হয়েছে আগামী ১৪ তারিখ পর্যন্ত চলবে লক ডাউন। তারই মাঝে কেন্দ্রীয় মাব সম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রী রমেশ পোখরিওয়াল জানিয়েছেন স্কুল কলেজ খোলা নিয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে আগামী ১৪ এপ্রিল। সমস্ত বিষয় পর্যালোচনা করেই নেওয়া হবে এই সিদ্ধান্ত।

কেন্দ্রীয় মন্ত্রী সাংবাদিকদের জানিয়েছেন এই মুহূর্তে স্কুল কলেজ খোলার নিয়ে মন্তব্য করা একটু সমস্যার। আগামী ১৪ তারিখে সব দিক বিচার করে জানানো হবে কবে থেকে খুলবে স্কুল কলেজ। কবে থেকে পড়ুয়ারা স্বাভাবিক ভাবে যেতে পারবে। তবে জানানো হয়েছে পড়ুয়াদের যাতে কোন ক্ষতি না হয় তা নিশ্চিত করা হবে কেন্দ্রের তরফে। আর ইতিমধ্যে বেশ কয়েকটি স্কুল এবং কলেজে অনলাইনে ক্লাসের প্রক্রিয়া শুরু হয়েও গিয়েছে। তা নিয়েও জানান কেন্দ্রীয় মন্ত্রী।

কেন্দ্রীয় মানব সম্পদ উন্নয়ন কন্ত্রকের তরফে জানানো হয় পরিস্থিতির উপরে সরকারের নজরদারি রয়েছে।সেই মত প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে সরকারের তরফ থেকে। এছাড়া পড়ুয়াদের পরীক্ষা নিয়েও ইতিমধেউয় কেন্দ্রীয় সরকারের পরিকল্পনা রয়েছে। কিন্তু তা জানা যাবে ১৪ তারিখের পরেই। দেশে ৩৪ কোটি পরীক্ষার্থী রয়েছে এই মুহূর্তে। করোনা আতঙ্কে সমস্ত পরীক্ষা আপাতত স্থগিত। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী জানিয়েছেন তাদের কাছে পড়ুয়া এবং সিক্ষকদের নিরাপত্তা সবার আগে গুরুত্বপূর্ণ।

ইতিমধ্যে বেশ কিছু পরীক্ষা বাতিল করা হয়েছে। এছাড়াও কিছু পরীক্ষার তারিখ পিছনো হয়েছে। এছাড়া বন্ধ রাখা হয়েছে পরীক্ষার্থীদের খাতা দেখার প্রক্রিয়াও। তা চালু হবে লক ডাউন ওঠার পরেই। কিন্তু স্বাভাবিক পরিস্থিতি কবে থেকে ফিরবে তা জানার জন্য আগ্রহী দেশের হাজার হাজার পড়ুয়া থেকে শুরু করে শিক্ষকেরাও। সিবিএসই সহ অন্যান্য রাজ্য বোর্ডের পরীক্ষাও ইতিমধ্যে স্থগিত রাখা হয়েছে। কবে থেকে তা ফের চালু হবে জানার জন্য ১৪ তারিখ অবধি অপেক্ষার ইঙ্গিত দিয়েছেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর।