বেজিং: চিনে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে এখনও পর্যন্ত ১,৪৮৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। দেশটিতে এ পর্যন্ত ৫৫ হাজার ৪৩৮ জন এ ভাইরাসে সংক্রমিত হয়েছেন বলে খবর ৷ তবে তার মধ্যে ছয় হাজার ৯৮৯ জন রোগী এখনও পর্যন্ত সুস্থ হয়ে উঠেছেন। এর বাইরে আরও ১৩ হাজার ৪৩৫ জন এই রোগে সংক্রমিত হয়েছে বলে সন্দেহ করা হচ্ছে।

চিনের হুবেই প্রদেশের স্বাস্থ্য কমিশন জানিয়েছে, নতুন করে সেখানে আরও ১১৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। বৃহস্পতিবার প্রদেশটিতে ২৪২ জন মারা গিয়েছেন এবং সংক্রমণ ঘটেছে ১৪ হাজার ৮০০ জনের।

গত কয়েক দিন হুবেই প্রদেশে নতুন রোগীর সংখ্যা কমতে থাকায় আশাবাদী হয়ে উঠতে শুরু করেছিলেন চিনা চিকিৎসকরা। কিন্তু গতকাল সেখানে মৃতের সংখ্যা অনেকটা আকস্মিকভাবেই বেড়ে যায়।

চিনে নতুন করোনাভাইরাস নিয়ন্ত্রণে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকায় থাকা সংক্রামক রোগ বিশেষজ্ঞ জয় নানশান আশা প্রকাশ করে বলেছিলেন, এ ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব চলতি মাসে সর্বোচ্চ পর্যায়ে থাকবে এবং এপ্রিলের দিকে বিপদ পুরোপুরি কেটে যাবে। তবে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা জানিয়েছে, নতুন করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব শেষ হয়ে আসছে- এমন কথা বলার সময় এখনো আসে নি। এখনো পরিস্থিতি যেকোনো দিকে যেতে পারে।

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হলে প্রাথমিক উপসর্গ হিসেবে নিউমোনিয়া দেখা দিতে পারে। কিন্তু বার্ধক্যজনতি এবং অন্য অসুস্থতা থাকা ব্যক্তিদের ক্ষেত্রে এ সংক্রামক রোগ হয়ে উঠতে পারে প্রাণঘাতী। এর কোনো প্রতিষেধক এখন পর্যন্ত মানুষের জানা নেই।