মুম্বই: চলছে শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি। ময়নাতদন্তের টেবিলে ছুরি-কাঁচি হাতে হাজির ডাক্তার ও সেবিকারা। হঠাৎই সবাইকে অবাক করে এক সেবিকা দেখলেন টেবিলে শোয়ানো মৃত ব্যক্তির নিঃশ্বাস পড়ছে। এর পরেই চিৎকার-উত্তেজনা। মৃত বলে সন্দেহ হওয়া ব্যক্তি বেঁচে আছে! এমনই এক অদ্ভুত ঘটনা ঘটল মুম্বইয়ের বৃহন্মুম্বই পুরসভার অন্তর্গাত লোকমান্য তিলক সায়ন হাসপাতালে।
এমনটা ঘটল কীভাবে? জানা গিয়েছে হাসপাতালের ভুলেই জীবিত ব্যক্তিকে মৃত ঘোষণা করে লাশকাটা ঘরে পাঠানো হয়েছিল। এক কর্মীর সতর্কতায় শেষপর্যন্ত জীবিত ব্যক্তির ময়নাতদন্ত এড়ানো সম্ভব হয়েছে।

ঘটনার শুরু রবিবার, সিওন থানার কাছে খবর আসে, রাস্তায় এক ব্যক্তি বেহুঁশ অবস্থায় পড়ে রয়েছেন। পুলিশ তাঁকে সায়ন হাসপাতালে ভরতি করায়। চিকিৎসাও শুরু হয়। কয়েক ঘন্টা পরেই ওই ব্যক্তিকে মৃত ঘোষণা করেন চিকিৎসকরা। ওই ব্যক্তির দেহ ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়। ময়নাতদন্তের ঠিক আগেই এক কর্মীর চোখে ‘মৃত’ ব্যক্তির স্পন্দন। এরপরই তাঁকে ফের চিকিৎসার জন্য হাসপাতালের বেডে নিয়ে আসা হয় ওই ব্যক্তিকে।