কলকাতা:  যখন মাতৃশক্তির আহ্বানে শিশির ভেজা ঘাসে প্রকৃতি পেতে দিয়েছে শিউলির গালিচা, তখন বাংলার ফ্যাশন র‍্যাম্পে বেজে উঠল- “শক্তিরূপেণ নমস্তুতে”- মাতৃবন্দনার সুর। নারীশক্তি, নারীক্ষমতার কথা নিয়েই ফ্যাশন শো। আর তার সঙ্গে পদে পদে সৌন্দর্যের ছটায় জ্বলজ্বল করছিল ‘বেঙ্গল ফ্যাশন উইক’-এর দ্বিতীয় দিন। হরি আনন্দ, যতীন কোচার, সঞ্জনা জোনের কালেকশনে এইদিন মার্জার সরণীতে নারীশক্তির আহ্বান করলেন অভিনেত্রী ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত সহ সুপারমডেল নাতাশা সুরী, প্রিয়াঙ্কা শাহ ও  অরিজিৎ দত্ত।DSC_0055

নারী সত্তার অন্তর্নিহিত শক্তিই ছিল এইদিন ফ্যাশন শো-এর স্টেটমেন্ট। তাই আধুনিকা থেকে আটপৌরে কন্যা, সব রূপেই র‍্যাম্প মাতালেন মডেলরা। ‘সেভ দ্য গার্ল চাইল্ড’-এই বার্তা দিয়েই বাংলার ফ্যাশনের সরণীর এইদিন ভিত্তি স্থাপন করলেন সঞ্জনা জোন। ‘নারীক্ষমতা’ এই থিমেই ছিল সঞ্জনার কালেকশন। আর থিমের সঙ্গে সাযুজ্য রেখেই  তাঁর কালেকশনও হয়ে উঠল দর্শকের দৃষ্টিনন্দনের অন্যতম সেরা আকর্ষণ। শো স্টপার ছিলেন ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত। DSC_0655
অন্য পর্বে ডিজাইনার হরি আনন্দের পোশাকে ছিল আধুনিকতার ছোঁয়া। সাহস, ক্ষমতা, তেজ- এক একটি রঙের প্রতীকে নারীর গুণকে  এইদিন মঞ্চে হাজির করেছেন তিনি। হরির কালেকশনে এইদিন র‍্যাম্প মাত করলেন ঊষশী সেনগুপ্তা।DSC_0215

অন্যদিকে বাংলার ঐতিহ্য শাড়ি, ধুতি থেকে হালফিলের প্যান্ট, জ্যাকেট, কাফতান এককথায় ফ্যাশনের পুরো স্টক নিয়ে মঞ্চে হাজির ছিলেন যতীন কোচার। আর যতীনের কালেকশনে মার্জার সরণীতে আগুন ঝরালেন সুপারমডেল ও অভিনেত্রী সোনিকা চৌহান।