দুবাই: বৃহস্পতিবার চেন্নাই সুপার কিংসের কাছে ৬ উইকেটে হেরে আইপিএল থেকে কার্যত বিদায় হয়ে গেল কলকাতা নাইট রাইডার্সের। খাতায়-কলমে অঙ্কের বিচারে এখনও সুযোগ থাকলেও সেটা সামান্য।

তাই বলা যায় চেন্নাইয়ের বিরুদ্ধে ‘মাস্ট উইন গেম’ হেরে প্রথম চারের সম্ভাবনা জটিল করে ফেলল পার্পল ব্রিগেড। তবে নাইটদের সামনে যে সামান্য সুযোগটুকু রয়েছে, তা নিয়ে যথেষ্ট আশাবাদী কলকাতা নাইট রাইডার্স শিবিরের মেন্টর ডেভিড হাসি।

বৃহস্পতিবার ম্যাচ শেষে সাংবাদিক সম্মেলনে তিনি জানিয়েছেন, আমাদের এই অবস্থার জন্য আমরা নিজেরাই দায়ী। তবে কে বলতে পারে কখন কী ঘটবে।

নাইটদের মেন্টর বলেছেন, ‘ম্যাচ হেরে আমরা নিজেদের প্লে-অফের রাস্তা কঠিন করে ফেলেছি। তবে এখনও প্রতিযোগীতায় টিকে রয়েছি আমরা। আমাদের পরের ম্যাচ রাজস্থানের সঙ্গে। তাই কয়েকদিনের মধ্যে নিজেদের ব্যাটারিগুলোকে রিচার্জ করে আমাদের মাঠে নামতে হবে এবং মুক্তমনে ক্রিকেট খেলতে হবে। আমরা কেউই জানি না কখন কী ঘটে যায়। ফলাফল আমাদের পক্ষে গেলে প্লে-অফে আমরা কিছু টিমকে বেগ দিতে প্রস্তুত।’

উল্লেখ্য, আগামী রবিবার লিগের শেষ ম্যাচে রাজস্থান রয়্যালসের বিরুদ্ধে নামবে নাইটরা। এদিকে বৃহস্পতিবার দুবাইয়ে লিগের ত্রয়োদশ ম্যাচে কলকাতা নাইট রাইডার্স চেন্নাই সুপার কিংসের কাছে হারতেই প্লে-অফ নিশ্চিত হয়ে গেল রোহিত শর্মা অ্যান্ড কোম্পানির।

বুধবার রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোরকে ৫ উইকেটে হারানোর পরেই প্লে-অফ কার্যত নিশ্চিত হয়ে গিয়েছিল চারবারের চ্যাম্পিয়নদের। অপেক্ষা ছিল সিলমোহরের। চেন্নাই সুপার কিংসের কাছে নাইটরা হারতেই মুম্বইয়ের প্লে-অফে যোগ্যতা অর্জনের বিষয়ে সিলমোহর পড়ে গেল। কলকাতা নাইট রাইডার্স চেন্নাইয়ের বিরুদ্ধে ম্যাচ জিতলে অঙ্কের বিচারে মুম্বইয়ের প্লে-অফে সিলমোহর পড়ার বিষয়টি আটকে থাকত।

কিন্তু কিন্তু কলকাতা এদিনের ম্যাচ হারায় আর কোনওরকম দ্বিধা রইল না মুম্বইয়ে প্লে-অফ খেলার বিষয়ে। ১২ ম্যাচে ১৪ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয়স্থানে রয়্যাল চ্যালেঞ্জার্স ব্যাঙ্গালোর। সমসংখ্যক ম্যাচে সমান পয়েন্ট নিয়ে নেট রান রেটে তৃতীয়স্থানে দিল্লি ক্যাপিটালস। শেষ তিনটি ম্যাচ হেরে প্লে-অফের অঙ্কটা কিছুটা হলেও জটিল করে ফেলেছে দিল্লি।

অন্যদিকে টানা পাঁচ ম্যাচ জিতে প্লে-অফের লড়াইয়ে দারুণভাবে নিজেদের মেলে ধরেছে কিংস ইলেভেন পঞ্জাব। কলকাতা নাইট রাইডার্সকে টপকে আপাতত লিগ টেবিলে চারে তারা। ১২ ম্যাচে পঞ্জাবের সংগ্রহে ১২ পয়েন্ট।

চেন্নাইয়ের কাছে হেরে প্লে-অফের অঙ্ক এদিন অনেকটাই জটিল করে ফেলল নাইটরা। বৃহস্পতিবারের ম্যাচ জিতলে পঞ্জাবকে টপকে লিগ টেবিলে চারে যাওয়ার সুযোগ ছিল তাদের কাছে।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

কোনগুলো শিশু নির্যাতন এবং কিভাবে এর বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানো যায়। জানাচ্ছেন শিশু অধিকার বিশেষজ্ঞ সত্য গোপাল দে।