ছবি: প্রতীকী

কলকাতা: ফের সল্টলেকে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে তৃতীয় শ্রেণীর এক ছাত্রের মৃত্যুর ঘটনা ঘটল৷ মৃত ছাত্রের নাম আকাশ চৌধুরী৷ বিধাননগর পুরসভার ৩৯ নম্বর ওয়ার্ডের ১১৫ দত্তাবাদ রোডের বাসিন্দা৷ আকাশ বাগমারী-মানিকতলা গভমেন্ট স্পন্সসর হাই স্কুলের ছাত্র৷

পরিবার সূত্রের খবর, বেশ কয়েকদিন ধরে আকাশ জ্বরে ভুগছিল৷ তাকে চলতি মাসের তিন তারিখে বিধাননগর মহকুমা হাসপাতালে ভর্তি করা হয়৷ অবস্থার অবনতি হলে তাকে চার তারিখে এন আর এস হাসপাতালে রেফার করা হয়৷ সেখানেই বৃহস্পতিবার মৃত্যু হয় আকাশের৷ হাসপাতাল সূত্রে খবর,নয় বছরের আকাশের রক্তে NS-1 পজিটিভ পাওয়া যায়৷ চিকিৎসকরা অনেক চেষ্টা করেও ওই ছাত্রকে বাঁচাতে পারেনি৷

এক সপ্তাহ আগে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে নারায়ণ শ্রেষ্ঠ নামে সল্টলেক পয়েন্ট স্কুলের চতুর্থ শ্রেণীর এক ছাত্রের মৃত্যু হয়৷ নারায়ণ শ্রেষ্ঠও বিধাননগর পুরসভার ৩৯ নম্বর ওয়ার্ডের দত্তাবাদের বাসিন্দা ছিল৷ হাসপাতাল সূত্রে খবর, বছর দশের নারায়ণ শ্রেষ্ঠের প্লেটলেট চার হাজারের নিচে নেমে পড়েছিল যার ফলে শরীরের অঙ্গ প্রত্যঙ্গ কাজ করা বন্ধ করে দেয়৷ মাল্টি অরগ্যান ফেলিওর কারণেই তার মৃত্যু হয়েছে বলে মনে করা হচ্ছে।

বিধাননগর পুরসভার ডেঙ্গু রোধে একগুচ্ছ পরিকল্পনা নিয়ে কাজ শুরু করেছে কিন্তু ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু ঠেকাতে পারছে না বলে অভিযোগ৷ তার মধ্যে আবার একই পাড়ায় এক সপ্তাহের মধ্যে দুই ছাত্রের মৃত্যু৷ এরফলে এখন দত্তাবাদের বাসিন্দারা আতঙ্কের মধ্যে দিন কাটাচ্ছেন৷

এবছর রাজ্যে ডেঙ্গুতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে হল চার৷ এই সংখ্যাটি কোথায় গিয়ে দাঁড়ায় সেটাই এখন দেখার বিষয়৷ গত বছরের রেকর্ড ভাঙ্গবে না তো উঠছে এমনই প্রশ্ন৷