সেঞ্চুরিয়ন: গত জুলাইয়ে গল ইন্টারন্যাশনাল স্টেডিয়ামে শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে ছুঁয়েছিলেন রেকর্ড৷ কিংবদন্তি তারকাকে টপকে নতুন রেকর্ড গড়তে প্রয়োজন ছিল মাত্র একটি উইকেট৷ সেঞ্চুরিয়নের সুপারস্পোর্ট পার্কে মাত্র ১৯ বল অপেক্ষা করতে হল ডেল স্টেইনকে৷ পাক ওপেনার ফকর জামানকে ফিরিয়ে দিয়ে প্রোটিয়া তারকা ছাপিয়ে গেলেন শন পোলককে৷ মাথায় তুললেন দেশের সর্বোচ্চ টেস্ট উইকেটশিকারীর মুকুট৷

আরও পড়ুন: নজির গড়ে হালে পানি দিলেন ময়াঙ্ক

১০৮টি টেস্টে ২৩.১১ গড়ে পোলক নিয়েছেন ৪২১টি উইকেট৷ সেঞ্চুরিয়নের প্রথম ইনিংসের পর ৮৯ টেস্টে ২২.৬০ গড়ে ৪২২টি উইকেট নিলেন স্টেইন৷ দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে সর্বোচ্চ টেস্ট উইকেট দখলের পালক মুকুটে যোগ করা ছাড়াও সর্বকালীন টেস্ট উইকেটশিকারীদের তালিকায় এগারো নম্বরে উঠে এলেন স্টেইন৷ তাঁর সামনে রয়েছেন স্যার রিচার্ড হ্যাডলি (৪৩১)৷ কিংবদন্তি কিউয়ি তারকাকে টপকে যেতে পারলেই এই তালিকার প্রথম দশে নাম লেখাবেন তিনি৷

আরও পড়ুন: বক্সিং ডে টেস্টে একাধিক বিশ্বরেকর্ডের সামনে দাঁড়িয়ে কোহলি

পাকিস্তানের বিরুদ্ধে প্রথম ইনিংসে স্টেইন অবশ্য এই একটি মাত্র উইকেটই দখল করেন৷ পাক ইনিংসের মেরুদণ্ড ভেঙে দেন দুয়ান অলিভিয়েন৷ ডানহাতি এই পেসার একাই তুলে নেন ৬টি উইকেট৷ বাকি ৩টি উইকেট নেন কাগিসো রাবাদা৷

টসে জিতে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে পাকিস্তান ৪৭ ওভারে ১৮১ রানে অলআউট হয়ে যায়৷ ১৫টি বাউন্ডারির সাহায্যে ৭৯ বলে ৭১ রান করেন বাবর আজম৷ ৭টি বাউন্ডারির সাহায্যে ৬৯ বলে ৩৬ রান করেন আজহার আলি৷ বাকিরা কেউই বলার মতো রান করতে পারেননি৷

আরও পড়ুন: নতুন বছরে টি-২০ ক্রিকেটে ফিরলেন ধোনি

পাল্টা ব্যাট করতে নেমে দক্ষিণ আফ্রিকাও অবশ্য স্বস্তিতে নেই৷ প্রথম দিনের শেষে প্রোটিয়ারা ১২৭ রান তুলতেই পাঁচটি উইকেট হারিয়ে বসেছে৷ মার্করাম (১২), এলগার (২২), আমলা (৮), ডি’ব্রুইন (২৯) ও ডু’প্লেসি (০) সাজঘরে ফিরেছেন৷ বাভুমার (৩৮) সঙ্গে অপরাজিত রয়েছেন নাইটওয়াচম্যান স্টেইন (১৩)৷