নয়াদিল্লি: ভবিৎষতে যাতে কোনো আর্থিক সমস্যা না হয় তার জন্যে সাধারণ মানুষ সঞ্চয় করে রাখে। আপনি যদি কোনও বিনিয়োগের পরিকল্পনা করে থাকেন, তবে কম বিনিয়োগ করেও আপনি বড় অর্থ উপার্জন করতে পারবেন। এই জন্য, আপনার সঠিক জায়গায় সঠিক বিনিয়োগের পরিকল্পনা করতে হবে।আপনি যদি সঠিকভাবে বিনিয়োগ করেন, তবে আপনি প্রতিদিন ৫০ টাকা বিনিয়োগ করে কয়েক বছরে ৫০লক্ষ টাকা রিটার্ন পেতে পারেন। এটার জন্য মিউচুয়াল ফান্ড একটি ভাল বিকল্প।এখানে আপনি কম বিনিয়োগ করে আরও ভাল লাভ করতে পারেন।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, যেখানে ভালো আয় হবে সেখানেই বিনিয়োগ করা উচিত। এর জন্যে মিউচুয়াল ফান্ড সঠিক বিকল্প। আপনি যদি ফিক্সড ডিপোজিট বা কোনও পোস্ট অফিস স্কিমে বিনিয়োগ করেন তবে সেখানে ৭ থেকে ৮ শতাংশের বেশি রিটার্ন পাওয়া যায় না। তবে মিউচুয়াল ফান্ডে আপনি বিনিয়োগ করলে বার্ষিক ১২ থেকে ১৫ শতাংশ হরে সহজেই রিটার্ন পেতে পারেন।

৫০ লক্ষ টাকা রিটার্ন পেতে আপনি SIP-এর মাধ্যমে বিনিয়োগ করতে পারেন। সিস্টেমেটিক ইনভেস্টমেন্ট প্ল্যান (Systematic Investment Plan) এর মাধ্যমে আপনি প্রতি মাসে কিছুটা অর্থ বিনিয়োগ করতে পারেন।ফ্র্যাঙ্কলিন টেম্পলটন অফ ইন্ডিয়ার ওয়েবসাইটে একটি হিসাব দেওয়া হয়েছে।কেউ যদি প্রতি মাসে মিউচুয়াল ফান্ড প্রকল্পে ১০০০ টাকা বিনিয়োগ করে, তবে ২০ বছর পরে, ২০ লক্ষ টাকা রিটার্ন পাবে। এখানে আনুমানিক ১২ শতাংশ হারে রিটার্ন পাওয়া যায়।যদি কেউ প্রতি মাসে ৫০০ টাকা বিনিয়োগ করে তবে ২০ বছরে প্রায় ৫ লক্ষ টাকা রিটার্ন পেতে পারেন।আপনি যদি ৩০ বছরের জন্য প্রতি মাসে ৫০০ টাকা জমা করেন তবে সাড়ে ১৭ লক্ষ টাকার বেশি রিটার্ন পেতে পারেন।অর্থাৎ, আপনি যত বেশি সময়ে বিনিয়োগ করবেন তত বেশি আপনি চক্রবৃদ্ধি হারে রিটার্ন পাবেন।

আপনি যদি ৫০ লক্ষ টাকা রিটার্ন পেতে চান তবে প্রতি মাসে ১৫০০ টাকার বিনিয়োগ যথেষ্ট।প্রতি মাসে ১৫০০ টাকা বিনিয়োগের অর্থ প্রতি দিন ৫০ টাকার বিনিয়োগ।আপনি যদি প্রতি মাসে ১৫০০ টাকা জমা রাখেন, ১২ শতাংশ সুদের হারে ৩০ বছর পরে আপনি ৫৩ লক্ষ টাকা রিটার্ন পেতে পারেন।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.