স্টাফ রিপোর্টার, বাঁকুড়া: মুরগিতে ধান খাওয়াকে কেন্দ্র করে পারিবারিক অশান্তি। তারই জেরে বৃদ্ধা শাশুড়িকে শ্বাসরোধ করে খুনের অভিযোগ উঠল বৌমা, দুই নাতনি সহ বেয়ানের বিরুদ্ধে। মৃতার নাম লতা ধাড়া। ৬২ বছর বয়স তাঁর।

মঙ্গলবার বাঁকুড়ার জয়পুর থানা এলাকার ঘাট শহর-শ্যামনগর গ্রামের এই ঘটনাকে ঘিরে এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতে, পুলিশ শাশুড়ি লতা ধারার বৌমা মামনি সহ চারজনকে গ্রেফতার করেছে।

জানা গিয়েছে, লতা ধাড়ার বড় বৌমা মামনি ধাড়ার বাড়িতে বেশ কয়েকটি মুরগি ঢুকেছিল। মুরগিতে কিছু ধান খেয়ে নেয়। এই ঘটনার পর মামনি ধাড়া শাশুড়িকে গালিগালাজ করতে থাকেন। অভিযোগ, প্রতিবাদ করলে শাশুড়ি লতা ধাড়াকে তার বড় বৌমা, দুই নাতনি ও বেয়ান মিলে মারধোর করে ও শ্বাসরোধ করে লতা ধাড়াকে খুন করে।

ঘটনায় এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে। ঘটনার খবর পেয়ে গ্রামে পুলিশ এসে মৃতদেহ উদ্ধারের পাশাপাশি লিখিত অভিযোগের ভিত্তিতে চার অভিযুক্তকে গ্রেফতার করে। পুলিশের পক্ষ থেকে ধৃতদের এদিনই বিষ্ণুপুর মহকুমা আদালতে তোলা হয়।

গ্রামবাসী তপন মেটে, মানু সিংরা ঘটনার বিবরণ দিয়ে বলেন, অভিযুক্তদের পুলিশ গ্রেফতার করেছে। একই সঙ্গে গ্রামের পক্ষ থেকে ধৃতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে এদিন তাঁরা সরব হন। পুলিশের পক্ষ থেকে ঘটনার তদন্তের পাশাপাশি মৃতদেহটি ময়নাতদন্তের জন্য বিষ্ণুপুর জেলা হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে বলে জানানো হয়েছে।