ফাইল ছবি

কলকাতাঃ  রাজ্য বিদ্যুৎ বন্টন পর্ষদের কর্মচারীদের কেন্দ্রীয় হারে ডিএ দিতে নির্দেশ কলকাতা হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চের। কেন্দ্রীয় হারে ডিএ-এর দাবিতে হাইকোর্টে মামলা করে বিদ্যুৎ বন্টন পর্ষদের ইঞ্জিনিয়ার অ্যাসোসিয়েশন। দীর্ঘ শুনানি চলে কলকাতা হাইকোর্টে। দীর্ঘ সওয়াল-জবাব শেষে ঐতিহাসিক নির্দেশ কলকাতা হাইকোর্টের।

উল্লেখ্য, বিদ্যুৎ বন্টন কর্মচারীরাও কেন্দ্রীয় হারে মহার্ঘ ভাতা পেতেন। কিন্তু ২০১৬ সাল থেকে ডিএ কম করার সিদ্ধান্ত নেয় রাজ্য বিদ্যুৎ বন্টন পর্ষদ। এরপর ওই বছর অর্থাৎ ২০১৬ সালেই কলকাতা হাইকোর্টে মামলা করা হয়। বিচারপতি অমৃতা সিনহার সিঙ্গল বেঞ্চ অন্তর্বর্তী নির্দেশে কেন্দ্রীয় হারে ডিএ দেওয়ার নির্দেশ দেন।

এরপর সিঙ্গল বেঞ্চের রায়কে চ্যালেঞ্জ করে ডিভিশন বেঞ্চে আবেদন করে বিদ্যুৎ বন্টন পর্ষদ। সেই মামলার রায়ে বন্টন কর্মচারীদের কেন্দ্রীয় হারে ডিএ দিতে হবে। নির্দেশে বলা হয়েছে বকেয়া ডিএ-এর টাকা ১০ শতাংশ সুদের হারে দিতে হবে। আজ নির্দেশ বিচারপতি সৌমেন সেন ও বিচারপতি সৌগত ভট্টাচার্যর ডিভিশন বেঞ্চের। এহেন নির্দেশে খুশি রাজ্য বিদ্যুৎ বন্টনের কর্মীরা। দীর্ঘ লড়াই শেষে আদালতের নির্দেশে খুশি তারা।

অন্যদিকে, বড়সড় ঘোষাণা করেছে নরেন্দ্র মোদী পরিচালিত মন্ত্রীসভা। শুক্রবার কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মচারীদের ডিয়ারনেস অ্যালাওয়েন্স ৪ শতাংশ বাড়ানো হয়েছে। যার মানে ১৭ শতাংশ থেকে বেড়ে দাঁড়াল ২১ শতাংশ। জানুয়ারি মাসের ১ তারিখ থেকে এই নিয়ম লাগু করা হবে, এমনটাই জানিয়েছেন কেন্দ্রীয়মন্ত্রী প্রকাশ জাভরেকর।

কেন্দ্রের এই সিদ্ধান্তে ৪৮ লক্ষ কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মী এবং ৬৫ লক্ষ পেনশনভোগীরা উপকৃত হবেন বলেই উল্লেখ করেছেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী। এই সিদ্ধান্তের ফলে সব মিলিয়ে ১ কোটি ১৩ লক্ষ পরিবার এর সুবিধা পাবেন বলেও সংবাদসংস্থাকে জানিয়েছেন জাভরেকর। তিনি বলেছেন, ডিয়ারনেস অ্যালাওয়েন্স বৃদ্ধি করার জন্য কেন্দ্রীয় সরকারকে আর ১৪ কোটি ৫৯৫ লক্ষ টাকা ব্যইয় করতে হবে বলেও তাঁর বক্তব্যে উল্লেখ করেন।

প্রশ্ন অনেক-এর বিশেষ পর্ব 'দশভূজা'য় মুখোমুখি ঝুলন গোস্বামী।