ভুবনেশ্বর: ভোর থেকেও ওড়িশা জুড়ে দাপিয়ে বেড়াচ্ছে ফণী। ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত গোটা রাজ্য। বহু মানুষকে নিরাপদ জায়গায় সরিয়ে নিয়ে যাওয়া সত্বেও মৃত্যু হয়েছে তিনজনের।

ফণীর দাপটে উড়ে গেল ভুবনেশ্বরের এইমস হাসপাতালের ছাদের অংশ। শুক্রবার সেই ভিডিও ট্যুইট করেছেন পিআইবি-র সাংবাদিক। ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে েইমসের ছাদ থেকে উড়ে যাচ্ছে ফাইবারের ছাউনি। তবে হাসপাতালের সব রোগী, চিকিৎসক ও ছাত্রছাত্রীরা নিরাপদে রয়েছেন বলেই জানা গিয়েছে।

রবিবার এই হাসপাতালে পোস্ট গ্র্যাজুয়েশনের একটি পরীক্ষা ছিল। ইতিমধ্যেই নোটিশ দিয়ে সেই পরীক্ষা বাতিল করা হয়েছে। আগামী ৫ মে হবে ওই পরীক্ষা।

পিআইবি-র ডিরেক্টর জেনারেল সীতাংশু কর ওই ভিডিও পোস্ট করেছেন। তিনি লিখেছেন, এইমসের হস্টেলের ছাদের একাংশ উড়ে যেতে দেখা যাচ্ছে। ওড়িশার স্বাস্থ্য সচিব জানিয়েছেন, হাসপাতালের জলের ট্যাংক উড়ে গিয়েছে, এসি গুলি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। তবে সব পরিস্থিতি মোকাবিলা করার জন্য উপযুক্ত ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

২০০ কিলোমিটার প্রতি ঘণ্টা বেগে ঝড় বয়ে গিয়েছে ওড়িশার উপর দিয়ে চালিয়েছে ধ্বংসলীলা। ধ্বংসের সেই বীভৎস সব ভিডিও ইতিমধ্যেই ছড়িয়ে পড়েছে। গত ২০ বছরে এরকম বীভৎস চেহারা দেখেনি ওড়িশা।

১৯৯৯-এর সুপার সাইক্লোনে ১০,০০০ মানুষের মৃত্যু হয়েছিল।