মুম্বই: ইতিমধ্যেই আছড়ে পড়েছে সাইক্লোন নিসর্গ। আলিবাগে আছড়ে পড়ার পর এগোচ্ছে সেই ঘূর্ণীঝড়। মুম্বই থেকে মাত্র ৮০ কিলোমিটার দূরে।

ইতিমধ্যেই শুরু হয়ে গিয়েছে তাণ্ডব। কয়েকদিন আগে আমফানে বাংলায় যে অভিজ্ঞতা হয়েছিল, তেমন দৃশ্যই এবার দেখা যাচ্ছে মহারাষ্ট্রে।

১ টার আগেই ব্যাপক হাওয়ার দাপটে উপড়ে গিয়েছে বহু গাছ। ১ টা্র কিছু পরেই মহারাষ্ট্রের রায়গড় জেলায় ঝড়ের মুখ প্রবেশ করেছে । মুম্বইতে চলছে ব্যাপক হাওয়া সঙ্গী বৃষ্টি।

আলিবাগের দক্ষিণ দিক দিয়ে এটি যাবে বলে জানাচ্ছেন আবহাওয়াবিদরা। গতি হবে সর্বোচ্চ ১২০ কিলোমিটার। এটি লেভেল ২এর ঘূর্ণিঝড় বলে জানাচ্ছে হাওয়া অফিস। আশঙ্কার কথা মাথায় রেখে প্রকাশ্যে মানুষের চলাচলে বিধিনিষেধ জারি করেছে মুম্বই। মুম্বই উপকূলের তীরবর্তী সমুদ্র সৈকত, পার্ক এরকম খোলা জায়গায় বেরোনোর ক্ষেত্রে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। গুজরাত, দমন-দিউ, দাদরা নগর হাভেলি এই সমস্ত জায়গায় ঝড়ের কারণে হাই অ্যালার্ট জারি করা হয়েছে।

মঙ্গলবার থেকেই ঝড়ে ক্ষতির আশঙ্কায় উপকূলবর্তী এলাকা থেকে সরানো হচ্ছে মানুষজনকে। মুখ্যমন্ত্রীর দফতরের তরফে বলা হয়েছে, “মুম্বই শহরে বাস করা বস্তিবাসীদের, বিশেষ করে নিচু এলাকার বাসিন্দাদের অন্যত্র সরানো হয়েছে”।

কলকাতার 'গলি বয়'-এর বিশ্ব জয়ের গল্প