মাস্কাটঃ   যুদ্ধবিধ্বস্ত ইয়েমেনের সোকোত্রা দ্বীপে আঘাত হানার একদিন পর ওমানের দক্ষিণাঞ্চলে আছড়ে পড়েছে ঘূর্ণিঝড় মেকুনু। ভয়াবহ এই ঝড়ে দুই দেশ মিলিয়ে অন্তত ৯ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। ওমানে নিহত দুজনের মধ্যে ১২ বছর বয়সী এক বালিকা অছে বলে জানিয়েছে বিবিসি। ঘন্টায় ১৫০ থেকে ১৭০ কিমি বেগে বয়ে যাওয়া হাওয়া মেয়েটিকে উড়িয়ে নিয়ে একটি দেওয়ালে আছড়ে ফেললে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয় বলে জানা গিয়েছে।

মেকুনুর আঘাতে দোফার ও আল-উয়াস্তা প্রদেশের বিশাল এলাকাজুড়ে বন্যা দেখা দিয়েছে। জলের নিচে তলিয়ে গেছে ডজনের ওপর গাড়ি। ঘূর্ণিঝড়ে তিনজন আহত হয়েছে বলে জানিয়েছে সেদেশের পুলিশ। শুক্রবার মেকুনু বিশাল রূপ ধারণ করলেও পরের দিকে এটি দুর্বল হয়ে পড়ে বলে আবহাওয়াবিদরা জানিয়েছেন। পরের দিকে এটি আরও দুর্বল হয়ে মৌসুমী ঝড়ে পরিণত হবে বলেও ধারণা তাদের।

ইয়েমেনের সোকোত্রা দ্বীপে আঘাত হানার একদিনের মাথায় মেকুনু ওমানের দ্বিতীয় বৃহত্তম শহর সালালাহর পশ্চিমে আছড়ে পড়ে। সোকোত্রায় ঘূর্ণিঝড়টির তাণ্ডবে অন্তত ৭জন নিহত হন বলে স্থানীয় সংবাদমাধ্যম জানিয়েছে। ঘণ্টায় ১৭০ কিলোমিটার গতির বাতাস ও মুষলধারে বৃষ্টির মধ্যেই উপকূলীয় এলাকা দোফার ও আল-উয়াস্তা সংলগ্ন কয়েক হাজার বাসিন্দাকে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন সরকারি আধিকারিকরা।