স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: মহানগর থেকে মাত্র ৩৭০ কিলোমিটার দূরে রয়েছে ফণী। এমনটাই জানাচ্ছে আলিপুর আবহাওয়া দফতর। থেকেই মেঘে ঢাকা শহরের আকাশ।

ফনীর প্রভাব যে ধীরে ধীরে স্পষ্ট হচ্ছে আকাশের অবস্থা তা প্রমাণ দিচ্ছে। শুক্রবার সন্ধ্যা থেকে রাতে গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গে ৯০ থেকে ১০০। কলকাতায় ৫০ থেকে ৬০ কিলোমিটার বেগে ঝড়ের সম্ভাবনা রয়েছে সঙ্গে বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। স্বাভাবিক নিয়মেই কমেছে পারদ।

গত দিন দুয়েক ধরে শহরের পারদ চড়া থেমেছে। শুক্রবার শহরের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৪.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে এক ডিগ্রি কম । সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৮.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস, স্বাভাবিকের থেকে তিন ডিগ্রি বেশি।

বৃহস্পতিবার শহরের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৫.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিক। সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৮.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে তিন ডিগ্রী বেশি। ইতিমধ্যেই ঝড় ওড়িশার ও পশ্চিমবঙ্গের দিকে বাঁক নিয়েছে।

বুধবার শহরের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৫.১ ডিগ্রি সেলসিয়াস যা স্বাভাবিক। সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৮.০ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে দুই ডিগ্রি বেশী। মঙ্গলবারের তাপমাত্রা প্রায় একইরকম ছিল। সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৫.১ ডিগ্রি সেলসিয়াস যা স্বাভাবিকের থেকে এক ডিগ্রি বেশী। সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৮.৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিকের থেকে তিন ডিগ্রি বেশী।

প্রশ্ন অনেক: দশম পর্ব

রবীন্দ্রনাথ শুধু বিশ্বকবিই শুধু নন, ছিলেন সমাজ সংস্কারকও