ভুবনেশ্বরঃ গত দুদিন কেটে গিয়েছে সুপার সাইক্লোন আছড়ে পড়ে বাংলা উপকূলে। বিধ্বস্ত চেহারা নিয়েছে দক্ষিণবঙ্গ সহ গোটা কলকাতা। আর তা ঠিক করতে এখনও হিমশিম খাচ্ছে প্রশাসন। যদিও যুদ্ধকালীন তৎপরতায় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করা হচ্ছে। কিন্তু ক্ষতির পরিমাণ এতটাই যে সহজে আয়ত্তে আনা যাচ্ছে না। সম্পূর্ণভাবে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে আরও বেশ কিছুদিন সময় কেটে যেতে পারে বলে আশঙ্কা।

শুধু বাংলাতেই নয়, ওডিশার একাংশেও আছড়ে পড়েছে বিধ্বংসী এই সাইক্লোন। সেখানেও ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। সেখানেও প্রাণহানির ঘটনা ঘটেছে। তবে বাংলার মতো এতটা নয়। তবে ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ সরজমিনে খতিয়ে দেখতে আকাশ পথে বিধ্বস্ত এলাকা পরিদর্শন করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। তবে বিধ্বংসী এই ঝড় চলে যাওয়ার পর বাংলা এবং ওডিশার আকাশেও ধরা পড়েছে কিছু মহাজাগতিক ঘটনা।

জানা যাচ্ছে, সুপার সাইক্লোনের রেশ কেটে যেতেই ওডিশার আকাশ হঠাত করেই পিঙ্ক হয়ে যায়। এমন একগুচ্ছ ছবি সম্প্রতি প্রকাশ্যে এসেছে। হঠাত কেন আকাশ এভাবে পিঙ্ক হয়ে গেল? তা নিয়ে শুরু হয়েছে জোর জল্পনা।

 

শুধু ওডিশার আকাশেই নয়, বাংলার আকাশেও ঝড়ের তাণ্ডব থামতেই দেখা যায় বিরল এক মহাজাগতিক ঘটনা। ‘এক্সক্লুসিভ’ ছবি ধরা পড়েছিল মেদিনীপুরের বাসিন্দা সৌমেন্দু দে’র ক্যামেরায়।

তিনি জানিয়েছেন, ‘পশ্চিম মেদিনীপুরেও চলছিল আমফানের তাণ্ডব। ঠিক সেই সময়ই, আমাদের পরিবারের সদস্যদের চোখে পড়ে, দক্ষিণ-পশ্চিম আকাশে এক সবুজ আলোর রেখা। প্রথমে নিজেদের চোখকে বিশ্বাস করতে না পারলেও, কয়েক সেকেন্ড পর আবার দেখা মেলে সেই রেখার।’ তা সঙ্গে সঙ্গে ক্যামেরাবন্দি করে ফেলেন সৌমেন্দুবাবু। একে তিনি, ‘প্রোটন অরোরা’ হিসেবেও চিহ্নিত করতে চেয়েছেন।

এই বিষয়ে আরও বিস্তারিত জানতে ক্লিক করুন-

সুপার সাইক্লোনের তাণ্ডব শান্ত হতেই একেবারে মহাজাগতিক ঘটনা বাংলার আকাশে