মুম্বই: বলিউডে সাইবার হামলা। হঠাত্‍ই বলিউডে শুরু হয়েছে হ্যাকারদের উপদ্রব। গত এক মাসের মধ্যে ক্রমাগত হ্যাক হয়ে চলেছে তারকাদের প্রোফাইল। এবার হ্যাকারদের কবলে পড়লেন কোরিওগ্রাফার তথা পরিচালক ফারহা খান এবং অভিনেতা বিক্রান্ত মেসে।

তাঁদের টুইটার, ফেসবুক, ইনস্টাগ্রাম একে একে সবেতেই থাবা বসিয়েছে হ্যাকার। কে বা কারা হ্যাক হ্যাক করেছে তা এখনও স্পষ্ট নয়। তবে ফারহা নিজের সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্ট হ্যাকড হলেও পরবর্তী কালে নিজের স্বামী শিরিশ কুন্দরের সাহায্য তা রিইনস্টেট করতে পেরেছেন। ফারহার টুইটার এবং ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্ট হ্যাক করা হয়েছিল। শিরিশ একজন কম্পিউটার ইঞ্জিনিয়ার। যার জেরে তিনি ফারহার অ্যাকাউন্টগুলি ঠিক করতে পেরেছেন।

ফারহার সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাকাউন্টগুলি ঠিক হওয়ার পর তিনি হ্যাক হওয়ার বিষয়টি জানান এবং নিজের ফলোয়ারদের সাবধান করে দেন তাঁর অ্যাকাউন্ট থেকে যাওয়া কোনও লিঙ্কে যেন ক্লিক না করে তারা। অন্যদিকে বিক্রান্তের ইনস্টাগ্রাম এবং ফেসবুক হ্যাকড হয়।

যদিও তাঁর অ্যাকাউন্ট এখনও ঠিক করা যায়নি। তবে তিনিও নিজের ফলোয়ারদের সতর্ক করে দিয়েছেন। সম্প্রতি উর্মিলা মাতোন্ডকর, সুজান খানের ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্টও হ্যাকড হয়েছিল।

লাল-নীল-গেরুয়া...! 'রঙ' ছাড়া সংবাদ খুঁজে পাওয়া কঠিন। কোন খবরটা 'খাচ্ছে'? সেটাই কি শেষ কথা? নাকি আসল সত্যিটার নাম 'সংবাদ'! 'ব্রেকিং' আর প্রাইম টাইমের পিছনে দৌড়তে গিয়ে দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছে সত্যিকারের সাংবাদিকতার। অর্থ আর চোখ রাঙানিতে হাত বাঁধা সাংবাদিকদের। কিন্তু, গণতন্ত্রের চতুর্থ স্তম্ভে 'রঙ' লাগানোয় বিশ্বাসী নই আমরা। আর মৃত্যুশয্যা থেকে ফিরিয়ে আনতে পারেন আপনারাই। সোশ্যালের ওয়াল জুড়ে বিনামূল্যে পাওয়া খবরে 'ফেক' তকমা জুড়ে যাচ্ছে না তো? আসলে পৃথিবীতে কোনও কিছুই 'ফ্রি' নয়। তাই, আপনার দেওয়া একটি টাকাও অক্সিজেন জোগাতে পারে। স্বতন্ত্র সাংবাদিকতার স্বার্থে আপনার স্বল্প অনুদানও মূল্যবান। পাশে থাকুন।.

জীবে প্রেম কি আদৌ থাকছে? কথা বলবেন বন্যপ্রাণ বিশেষজ্ঞ অর্ক সরকার I।