corona virus -2

নয়াদিল্লি: করোনার থাবা সর্বত্র। এবার স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকে কর্মরত এল সেন্ট্রাল রিসার্ভ পুলিশ ফোরসের ডেপুটি ইন্সপেক্টর জেনারেল কোভীড-১৯ পরীক্ষা করলে রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে।

সরকারি সূত্রে জানা গিয়েছে, রবিবার ডেপুটি ইন্সপেক্টরের করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট পাওয়া গিয়েছে। সেখান থেকেই তিনি কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত জানা যায়। আরও জানা গিয়েছে, কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের কন্ট্রোল রুমের কাজ মনিটর করার দায়িত্বে ছিলেন ওই ডেপুটি ইন্সপেক্টর জেনারেল। এই অফিস নর্থ ব্লক।

অন্য যে দুই’জন ওই ডেপুটি জেনারেলের সঙ্গে কাজ করছিলেন তাঁদের কোয়ারেন্টাইন করা হয়েছে, মেনে চলা হচ্ছে সবরকম বিধিনিষেধ, তেমনই জানা গিয়েছে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক সূত্রে।

মন্ত্রক আরও জানিয়েছে, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকে কর্মরত সেন্ট্রাল রিসার্ভ পুলিশ ফোরসের ডেপুটি ইন্সপেক্টর জেনারেল বর্তমানে চিকিৎসাধীন। আইসোলেশনের সুবিধাযুক্ত জায়গায় তাঁকে ভর্তি করা হয়েছে। এর আগে, সেন্ট্রাল রিসার্ভ পুলিশ ফোরসের আরও দুই জওয়ানের করোনা পরীক্ষায় রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে তবে এখন তাঁরা দু’জনেই সুস্থ হয়ে উঠেছেন।

উল্লেখ্য, করোনা ভাইরাসের সংক্রমণের আতঙ্ক এমন গ্রাস করেছে যেখানে আত্মহত্যা করেছেন কাশ্মীরে একজন কেন্দ্রীয়বাহিনীর জওয়ান। ঘটনাটি মে মাসের ১২ তারিখের। তিনি নিজেকে গুলি করে শেষ করে দিয়েছেন। গুলির আওয়াজে অন্যান্য জওয়ানরা তাঁর কাছে পৌঁছতেই ওই ব্যাক্তিকে রক্তাক্ত অবস্থায় পাওয়া যায়।

এদিকে, করোনা আক্রান্ত হয়ে আরও এক সিআইএসএফ অফিসারের মৃত্যু হয়েছে কলকাতায়৷ তিনি গার্ডেনরিচ শিপ বিল্ডার্সে কর্মরত ছিলেন৷ মে মাসের শুরুর দিকে আধাসামরিক বাহিনীর সদর দফতরে করোনা হানায় নয়াদিল্লিতে সিআরপিএফের সদর দফতর সিল করে দেওয়া হয়। আপাতত কাউকেই ওই বিল্ডিংয়ে ঢুকতে দেওয়া হচ্ছে না।

করোনা আক্রান্ত হয়েছেন রেল কর্মী ও আধিকারিকরা। ৮০ জন আধিকারিক ও কর্মী করোনা আক্রান্ত হয়েছেন বলে জানা গিয়েছে। সাদার্ন রেলওয়ের চেন্নাই ডিভিশনের আধিকারিকর হিসেবে কর্মরত বলেই জানা যায়।

এদের মধ্যে রয়েছে রেলওয়ে প্রোটেকশন ফোর্স বা আরপিএফের জওয়ানরাও। এছাড়াও ডিভিশনের শীর্ষ আধিকারিকরাও করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। প্রসঙ্গত, মে মাসের শুরুদিকেই জানা গিয়েছিল জওয়ানদের মধ্যে সংক্রমণ শতাধিক ছড়িয়ে গিয়েছে।

কলকাতার 'গলি বয়'-এর বিশ্ব জয়ের গল্প