স্টাফ রিপোর্টার, জলপাইগুড়ি: পাচার করার সময় পুলিশের জালে ধরা পড়ল এক কোটি টাকারও বেশি মাদক। পুলিশ জানিয়েছে, উদ্ধার হওয়া ওই মাদকের বর্তমান বাজার মূল্য প্রায় এককোটি টাকারও বেশি। শুক্রবার জলপাইগুড়ি জেলার ৩১ নম্বর জাতীয় সড়কে পুলিশের রুটিন মাফিক তল্লাশির সময় একটি ট্রাক থেকে বাজেয়াপ্ত করা হয় ওই মাদক গুলি। যদিও এই ঘটনায় পুলিশ ট্রাক চালককে ধাওয়া করলেও গাড়ি ফেলে পালিয়ে যায় ওই চালক। গোটা বিষয়টি খতিয়ে দেখে পলাতক চালকের খোঁজে তল্লাশি শুরু করেছে কোতোয়ালি থানার পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, শুক্রবার নিয়ম মাফিক তল্লাশি চালানোর সময় বাজেয়াপ্ত করা হয় ওই ট্রাকটিকে। জানা গিয়েছে, প্রায় ট্রাকটি। কিন্তু ট্রাক ফেলে পালিয়ে যায় চালক।

কোতোয়ালি থানার আইসি বিশ্বাশ্রয় সরকার জানান, আসাম থেকে রাজস্থানে পাচার করা হচ্ছিল ওই বিপুল পরিমাণ মাদক। ট্রাকটির হুডের মধ্যে বস্তাবন্দি করে রাখা ছিল আফিম ও ব্রাউন সুগার। তল্লাশি চালাতে গিয়ে বেরিয়ে আসে বস্তাটি। লরিটি বাজেয়াপ্ত করেছে পুলিশ।

উল্লেখ্য, বেআইনি মাদকের বিরুদ্ধে অভিযান চালিয়ে গত কয়েক মাসের মধ্যে প্রায় দশ কোটি টাকার ব্রাউন সুগার, আফিম, ইয়াবা ট্যাবলেট ও গাঁজা উদ্ধার করেছে জলপাইগুড়ি কোতোয়ালি থানার পুলিশ। কয়েকটি গাড়ি সহ বেশ কয়েকজন পাচারকারী‌কেও গ্রেপ্তার করা হয়েছে। পাচারকারী‌দের বেশিরভাগ‌ই রাজস্থান, হরিয়ানা ও বিহার এলাকার বাসিন্দা বলে জানান তিনি।