স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: নীলরতন সরকার হাসপাতালে ডাক্তারদের নিগ্রহের ঘটনার প্রতিবাদে গত দু’দিন ধরে কর্মবিরতিতে রাজ্যের জুনিয়র ডাক্তাররা। বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টা নাগাদ এসএসকেএম হাসপাতালে পৌঁছন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ডাক্তারদের কর্মবিরতিতে চিকিৎসা না পাওয়া রোগী ও পরিবারের সঙ্গে কথা বলে মমতার ঘোষণা, গুরুতর অসুস্থ রোগীদের নিয়ে যাওয়া হবে প্রাইভেট হাসপাতালে।

কর্মবিরতিতে থাকা ডাক্তরদের পক্ষ থেকে বারবার দাবি করা হচ্ছিল স্বাস্থ্যমন্ত্রী বিষয়টি নিয়ে পদক্ষেপ করুন। এবং উনি প্রতিশ্রুতি দিন এরকম ঘটনা আর ঘটবে না৷ সেই দাবি মেনে মুখ্যমন্ত্রী হস্তক্ষেপ করলেন বটে তবে এসএসকেএমে এসে ডাক্তারদের কড়া বার্তা শোনাতে ছাড়লেন না। স্পষ্ট ভাষায় বলেন, যে ডাক্তাররা মার খেয়েছেন সেটা ঠিক নয়৷ কিন্তু রোগীদের পরিষেবা দিতে হবে। পরিষেবা না দিলে ডাক্তার হওয়া যায় না। কয়েকজন নাটক করছে। চার ঘন্টার মধ্যে কাজ শুরু না করলে হস্টেল খালি করে দিন। যারা কাজ করবে না তাদের সঙ্গে নেই সরকার। এখানেও বহিরাগতরা এসে গন্ডোগোল পাকানোর চেষ্টা করছে। যত নেতা আছেন ধর্ণায় আসুন। কাজে যোগ না দিলে কঠোর পদক্ষেপ নেওয়া হবে, বলেও হুশিয়ারি দেন মমতা।

তবে রোগীর সুরক্ষার বিষয়টিকে গুরুত্ব দিয়ে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, “আমরা সরকারি খরচায় গুরুত্বর অসুস্থ রোগীদের প্রাইভেট হাসপাতালে পাঠাচ্ছি। ওখানে সিনিয়র চিকিৎসকরা কাজ করছেন ওদের অনুরোধ করব ওঁরা যাতে বেশি সময় দিয়ে কাজ করেন। রোগীদের চিকিৎসা পাওয়া সবচেয়ে জরুরি বিষয়।”