রোম: গত তিন মরশুমে রিয়াল মাদ্রিদকে ইউরোপ সেরা করে ২০১৮-১৯ মরশুমের শুরুতে স্পেনের মায়াজাল কাটিয়ে ইতালিতে পা রেখেছিলেন তিনি। আর প্রথম মরশুমেই সিরি-‘এ’ বর্ষসেরা ফুটবলার হয়ে অসামান্য কৃতিত্বের অধিকারী হলেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো। রোনাল্ডোর যোগদানে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে দীর্ঘ দু’দশকেরও বেশি সময়ের খরা কাটাতে ব্যর্থ হয়েছে জুভেন্তাস। ডাচ ক্লাব আয়াক্সের কাছে অপ্রত্যাশিত হারে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ খেতাব জিততে না পারলেও টানা অষ্টমবার সিরি-‘এ’ খেতাব ঘরে তুলেছে তুরিনের ক্লাবটি। আর ২১ গোল করে জুভেন্তাসের টানা অষ্টম খেতাব জয়ে অনস্বীকার্য ভূমিকা নিয়েছেন রোনাল্ডো।

গোল করার পাশাপশি গোল করানোর ক্ষেত্রেও চলতি মরশুমে রোনাল্ডোর জুড়ি মেলা ছিল ভার। সবমিলিয়ে চলতি সিরি-‘এ’ তে দু’ম্যাচ বাকি থাকতেই বর্ষসেরা ফুটবলার হিসেবে মনোনীত হলেন সিআর সেভেন। একইসঙ্গে ইংল্যান্ড, স্পেনের পর ইতালিতে পা দিয়েও ঘরোয়া লিগে বর্ষসেরা ফুটবলারের শিরোপা দখল করলেন পর্তুগিজ ফুটবলের পোস্টার বয়। ব্যালন ডি’অর জয়ের ক্ষেত্রে মেসির সঙ্গে একাসনে (৫) থাকলেও ইউরোপীয় ফুটবলে যে দেশেই গিয়েছেন, নিজের নামের প্রতি সুবিচার করেছেন রোনল্ডো।

ইংরেজ ক্লাব ম্যাঞ্চেস্টার ইউনাইটেডের হয়ে জিতেছেন ইউরোপ সেরার মুকুট, চ্যাম্পিয়ন্স লিগ জিতেছেন রিয়াল মাদ্রিদের হয়েও। তাই প্রথম মরশুমে সিরি-‘এ’ তে বর্ষসেরা হয়ে আগামী মরশুমে তুরিনের ক্লাবটির হয়ে ইউরোপ সেরা হওয়াই লক্ষ্য পর্তুগিজ সুপারস্টারের। প্রথম ক্লাব হিসেবে টানা তিন মরশুমে রিয়াল মাদ্রিদকে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে সেরা করার পর চলতি মরশুমের শুরুতে রেকর্ড অংকের চুক্তিতে জুভেন্তাসে যোগ দেন রিয়ালের সর্বকালের সর্বোচ্চ গোল-স্কোরার। নতুন ক্লাবকে হতাশ করলেন না। প্রথম তিনম্যাচ নিষ্প্রভ থাকার পর গোলের খাতা খোলেন রোনাল্ডো। এরপর আর পিছনে গিরে তাকাতে হয়নি। এই মুহূর্তে লিগের তৃতীয় সর্বোচ্চ স্কোরার হিসেবে জুভেন্তাসের সিরি-‘এ’ খেতাব জয়ের নায়ক হয়ে রইলেন সিআর সেভেন।

৩৬ ম্যাচে ৮৯ পয়েন্ট নিয়ে লিগের মগডালে জুভেন্তাস। ৭৬ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয়স্থানে থাকা নাপোলির ধরাছোঁয়ার বাইরে তারা। বাকি দু’টি ম্যাচ। রোনাল্ডোর বর্ষসেরা ফুটবলার হওয়ার পাশাপাশি বর্ষসেরা গোলরক্ষকের শিরোপা জিতে নিয়েছেন ইন্টার মিলানের সমির হ্যান্ডানোভিচ। নাপোলির কালিদৌ কৌলিবালি জিতে নিয়েছেন সেরা ডিফেন্ডারের শিরোপা। সেরা মিডফিল্ডার হয়েছেন স্যম্পদোরিয়ার ফ্যাবিও কুয়াগলিয়ারেলা এবং সেরা স্ট্রাইকারের খেতাব জিতে নিয়েছেন রোমার তরুণ প্রতিভা নিকোলো জ্যানিয়োলা।