মাদ্রিদ: চ্যাম্পিয়ন্স লিগে রেকর্ড গড়া অভ্যাসে পরিণত করেছেন ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডো৷ বৃহস্পতি বার ঘরের মাঠে বরুশিয়া ডর্টমুন্ডের বিরুদ্ধে গোল করে আরও একটি নতুন নজির গড়লেন রিয়াল মাদ্রিদের তারকা স্ট্রাইকারটি৷ টুর্নামেন্টের ইতিহাসে তিনিই একমাত্র ফুটবলরা, গ্রুপ লিগের ছ’টি ম্যাচেই যিনি গোল করার কৃতিত্ব দেখালেন৷
চ্যাম্পিয়ন্স লিগে সর্বকালের সর্বোচ্চ গোলদাতা রোনাল্ডো৷ এদিন সংখ্যাটা বাড়িয়ে ১১৫ করলেন সিআর-সেভেন৷ দু’বছর আগে গ্রুপ লিগে রেকর্ড ১১টি গোল করেছিলেন তিনি৷ এক মরশুমে সর্বাধিক ১৭টি গোল করার রেকর্ড গড়েছেন ২০১৩-১৪ সংস্করণে৷ চ্যাম্পিয়ন্স লিগে সব থেকে বেশি ১২টি পেনাল্টি গোল করার নজিরও রয়েছে তাঁর ঝুলিতে৷

আরও পড়ুন: বিদায়ের দিনে চেলসির রাস্তা কঠিন করল অ্যাটলেটিকো

রোনাল্ডোর নতুন নজির গড়ার দিনে লুকাসের শেষ মুহূর্তের গোলে ডর্টমুন্ডের বিরুদ্ধে জয় পেল রিয়াল মাদ্রিদ৷ যদিও ডর্টমুন্ড-বধেও গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হওয়া হল না ক্রিশ্চিয়ানো রোনাল্ডোদের৷ রিয়াল চ্যাম্পিয়ন্স লিগের নকআউটে যায় গ্রুপ ‘এইচ’-র দ্বিতীয় দল হিসাবে৷

আরও পড়ুন: পিছিয়ে পড়েও জয় ইউনাইটেডের

স্যান্টিয়াগো বার্নাব্যু-তে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের গ্রুপ লিগের শেষ ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছিল দু’দল৷ ম্যাচের ৮ মিনিটের মাথায় মায়োরালের গোলে এগিয়ে যায় রিয়াল৷ মিনিট চারেক পরেই ব্যবধান বাড়িয়ে ২-০ করেন রোনাল্ডো৷ প্রথমার্ধে একটি গোল শোধ করে বরুশিয়া৷ ৪৩ মিনিটে পিয়ের-এমেরিক রিয়ালের জালে বড় জড়িয়ে হাফটাইমের স্কোর-লাইন ২-১ করেন৷

আরও পড়ুন: নগ্ন সেলিব্রেশন, চ্যাম্পিয়ন হয়েও সমালোচিত লিলস্ট্রোম

দ্বিতায়ার্ধের শুরুতেই গোল করে ডর্টমুন্ডকে সমতায় ফেরান এমরিকই৷ ৪৯ মিনিটে দলের দ্বিতীয় গোলটি আসে তাঁর পা থেকে৷ ৮১ মিনিটে রিয়ালের পরিত্রাতা হয়ে দেখা দেন লুকাস৷ তাঁর গোলেই রিয়াল ৩-২ ব্যবধানে জয় তুলে নেয়৷
অপর ম্যাচে অ্যাপোয়েল এফসি’কে ৩-০ গোলে হারিয়ে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয় টটেনহ্যাম৷ ৬ ম্যাচে তাদের সংগ্রহ ১৬ পয়েন্ট৷ রিয়াল গ্রুপ লিগের খেলা শেষ করে ১৩ পয়েন্ট নিয়ে৷

আরও পড়ুন: বড়সড় প্রশ্নচিহ্নের মুখে ২০১৮ ফুটবল বিশ্বকাপ

শাকতারের কাছে ২-১ গোলে হেরেও এফ-গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয় ম্যাঞ্চেস্টার সিটি৷ দ্বিতীয় দল হিসাবে প্রি-কোয়ার্টারে যায় শাকতার৷

ঘরের মাঠে স্পার্টাককে ৭-০ গোলে উড়িয়ে ই-গ্রপ চ্যাম্পিয়ন হয় লিভারপুল৷ হ্যটট্রিক করেন ক্যাপ্টেন কুটিনহো৷ গ্রুপের অপর দল হিসাবে নকআউটে যায় সেভিয়া৷