ফাইল ছবি

নয়াদিল্লি:  গার্লস হস্টেলের সামনে হস্তমৈথুন। অভিযুক্ত এক পুলিশ কর্মী। সোশ্যাল মিডিয়াতে ভাইরাল সেই ঘটনার ভিডিও। সোশ্যাল মিডিয়াতে সেই ভিডিও ভাইরাল হতেই হুলস্থুল বেঁধে যায়। এরপরেই স্থানীয় আদিবাতলা থানায় এই বিষয়ে লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে হায়দরাবাদের টাটা ইনস্টিটিউট অব সোশ্যাল সায়েন্সের গার্লস হস্টেলের সামনে। প্রকাশ্যে গার্লস হোস্টেলের সামনে এক পুলিশ কর্মীর এই কাজে চমকে উঠছে পুলিশমহল।

জানা গিয়েছে, ভাইরাল হওয়া ভিডিওটি এখনকার নয়। গতবছর অর্থাৎ ২০১৯ সালে। গত বছর ২০ অক্টোবর হোস্টেলের সামনে দাঁড়িয়ে অভিযুক্ত ওই ব্যক্তি হস্তমৈথুন করতে থাকে। পুলিশ সূত্রে আরও জানা গিয়েছে, সেদিন বিকেলে এক ছাত্রী হস্টেল থেকে বেরিয়ে স্থানীয় একটি দোকানের দিকে যাচ্ছিলেন। তখনই তিনি এক ব্যক্তিকে হস্তমৈথুন করতে দেখেন। প্রথমে লোকটি যে পুলিশ কর্মী তা বুঝতে পারেননি ওই ছাত্রী। পরে দেখা যায়, ওই ব্যক্তির পরনে ছিল পুলিশের উর্দি। সেই সময় ভিডিয়ো করা হলেও ওই কাজ থেকে বিরত হননি ওই পুলিশ কর্মী। ওই ছাত্রী সাহায্যের জন্য চিৎকার শুরু করলে পালিয়ে যায় ওই অভিযুক্ত।

ভয়ঙ্কর সেই ঘটনার কথা সেই সময়ই সোশ্যাল মিডিয়াতে জানান ওই ছাত্রী। কিন্তু সেভাবে কিছুই হয়নি। এমনকি স্থানীয় থানাতে এই বিষয়ে অভিযোগ জানাতে গেলে হাসাহাসি করে উড়িয়ে দেয় বলে অভিযোগ। সম্প্রতি ভয়ঙ্কর সেই ভিডিওটি ভাইরাল সোশ্যাল মিডিয়াতে। যেখানে স্পষ্ট পুলিশ কর্মীর হস্তমৈথুনের ছবি।

আর তা ভাইরাল হতেই নড়েচড়ে বসে পুলিশমহলও। এক উচ্চপদস্থ পুলিশ আধিকারিক অভিযোগকারিণীর সঙ্গে যোগাযোগ করে অভিযোগ দায়ের করতে বলেন। এর পর আদিতাবাদ পুলিশ স্টেশনে অভিযোগ দায়ের করা হয়।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, ইতিমধ্যে ঘটনার তদন্ত শুরু হয়েছে।

Proshno Onek II First Episode II Kolorob TV