ম্যাঞ্চেস্টার: বিশ্বকাপের মঞ্চে সামনে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ভারত মানেই পাকিস্তানের শিরে সংক্রান্তি। প্রত্যেকবারই ‘ময়দানি জং’ শুরুর আগে ক্রিকেটারদের থেকে ম্যাচ জয়ের প্রত্যাশা নিয়ে আশায় বুক বাঁধেন সমর্থকেরা। কিন্তু প্রত্যেকবারই নিরাশ হতে হয় পাক অনুরাগীদের। অন্যথা নয় এবারও। আর বিশ্বক্রিকেটের মেগা ইভেন্টে ভারতের বিরুদ্ধে ০-৭ ব্যবধানে পিছিয়ে পড়ে রাগে-হতাশায় ক্ষোভ উগড়ে দিয়ে একদল সমর্থকের মারত্মক অভিযোগ, ম্যাচের আগের রাতে পিৎজা-বার্গার খেয়ে রীতিমতো পার্টি মুডে সময় কাটিয়েছেন সরফরাজরা।

রবিবাসরীয় ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে ভারতীয় ব্যাটিং চলাকালীন উইকেটের পিছনে দস্তানা হাতে পাক অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদের হাই তোলার মুহূর্ত ক্যামেরাবন্দি হয়। যা নিয়ে দেশ-বিদেশের নেটিজেনদের কাছে সমালোচনায় বিদ্ধ হচ্ছেন পাক অধিনায়ক। তাঁর হাই তোলার ছবি ঘিরে সোশ্যাল মিডিয়ায় গত রাত থেকে শুরু হওয়া ট্রোলিং ইতিমধ্যেই টেন্ডিং। পাক ক্রিকেটারদের ফিটনেস, বাইশ গজে খেলতে নেমে তাঁদের দেশের প্রতি আনুগত্য নিয়ে ইতিমধ্যেই চর্চা চলছে সেদেশের ক্রিকেটমহলে।

এরইমধ্যে রবিবার ম্যাচের পর ম্যাঞ্চেস্টারের রাস্তায় এক পাক অনুরাগীকে দলের পারফরম্যান্স নিয়ে প্রশ্ন করে সেদেশের এক সংবাদমাধ্যম। উত্তরে জাতীয় দলের ক্রিকেটারদের প্রতি একরাশ ক্ষোভ উগড়ে দেন ওই সমর্থক। ক্ষোভ উগড়ে দিয়ে ওই পাক অনুরাগীর মারাত্মক অভিযোগ, ‘আমরা প্রত্যাশা করে থাকি দলের জয়ের জন্য, কিন্তু আমাদের কাছে খবর গত রাতে ক্রিকেটাররা ফিটনেসের কথা বেমালুম ভুলে গিয়ে বার্গার-পিৎজা ইত্যাদি খেয়েছেন।’ ইন্টারনেটে ভাইরাল হওয়া এক ভিডিওতে সরফরাজ অ্যান্ড কোম্পানির হতাশাজনক বডি ফিটনেসের পিছনে এমন অনিয়ন্ত্রিত জীবণযাপনকেই মূল কারণ হিসেবে দর্শিয়েছেন ওই অনুরাগী, যা রীতিমতো ভাইরাল।

ক্রিকেটারদের এমন হতশ্রী পারফরম্যান্স দেখে পাক সমর্থকের অভিযোগ, পাকিস্তান দল মাঠে যতই লড়াইয়ের হাঁক-ডাক করুন না কেন আসলে তাঁরা লড়াই করার যোগ্যই নয়। গোটা দল নিশানায় থাকলেও পাক অনুরাগী সবচেয়ে ক্ষুব্ধ অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদের উপর। স্টাম্পের পিছনে দাঁড়িয়ে দলনায়কের হাই তোলার ঘটনা উল্লেখ করে তাঁকে তীব্র সমালোচনায় বিদ্ধ করেন ওই অনুরাগী। এমনকি পাকিস্তান দলের সামগ্রিক পারফরম্যান্স দেখে ক্ষোভের পাশাপাশি তিনি যে ভীষণভাবে আশাহত সেটা তার অভিব্যক্তিতেই বুঝিয়ে দেন পাক সমর্থক।

অন্যদিকে পাকিস্তান দলের খারাপ পারফরম্যান্স নিয়ে বলতে গিয়ে অধিনায়ক সরফরাজের উপর হতাশা ও ক্ষোভ উগড়ে দিয়েছেন রাওয়ালপিন্ডি এক্সপ্রেসও। রবিবার ম্যাচ হারের পর অধিনায়ক সরফরাজকে নজিরবিহীন আক্রমণ করে বসলেন দেশের প্রাক্তন স্পিডস্টার শোয়েব আখতার। পাক দলনায়কের অধিনায়কত্বকে ‘মস্তিষ্কহীন’ বলে খোঁচা দিলেন রাওয়ালপিন্ডি এক্সপ্রেস। একইসঙ্গে দেশের ক্রিকেট ম্যানেজমেন্টকে ‘অপদার্থ’ আখ্যা দিয়ে বিস্ফোরক আখতার।

পপ্রশ্ন অনেক: চতুর্থ পর্ব

বর্ণ বৈষম্য নিয়ে যে প্রশ্ন, তার সমাধান কী শুধুই মাঝে মাঝে কিছু প্রতিবাদ