কলকাতাঃ ফের মাঠেই প্রাণ হারালেন ক্রিকেটার। বুধবার বালিগঞ্জ স্পোর্টিং ক্লাবের ক্রিকেটার সোনু যাদবের মৃত্যু হয়। ময়দানের বাটা মাঠে প্র্যাকটিস ম্যাচ খেলার সময় মরর্মান্তিক এই দুর্ঘটনা ঘটে। কয়েক ওভার ব্যাটিং করার পর আউট হয়ে মাঠের বাইরে চলে আসেন সোনু৷ কিন্তু হেলমেট খোলার সময় হঠাৎই অসুস্থ হয়ে পড়ে যায় সে৷ তার পর সে নিজেই উঠে দাঁড়ায় কিন্ত ফের পড়ে গিয়ে জ্ঞান হারান বছর বাইশের এই ক্রিকেটার৷

দ্রুত তাঁকে মাঠে থেকে সিএবি-র মেডিক্যাল ইউনিটে আনা হয়৷ কিন্তু সেখান থেকেই তাঁকে এসএসকেএমে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানেই ডাক্তাররা তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। একবালপুরের এই ক্রিকেটারের মৃত্যু নিয়ে পুলিশ তদন্ত শুরু করেছে৷ মৃত্যুর কারণ এখনও জানা না-গেলেও সান-স্ট্রোক হয়ে ক্রিকেটারটির মৃত্যু হয়েছে প্রাথমিকভাবে মনে করা হচ্ছে৷

চলতি বছর জানুয়ারিতে প্র্যাকটিস করতে গিয়ে মৃত্যু হয়েছিল পাইকপাড়া স্পোর্টিং ক্লাবের হয়ে সিএবি লিগে খেলা অনিকেত শর্মার৷ প্র্যাকটিসের সময় ফিল্ডিং করতে গিয়ে পড়ে অ়জ্ঞান হয়ে গিয়েছিল৷ সঙ্গে সঙ্গে তাঁর সতীর্থ ও ক্লাব কর্তারা অনিকেতকে আরজি কর হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেছিল৷ এদিন যেন সেই ঘটনারই পুনরাবৃত্তি ঘটল৷ প্র্যাকটিস ম্যাচ খেলার সময়ই প্রাণ গেল উঠতি ক্রিকেটার৷

বছর একুশের তরুণ ক্রিকেটারের আকস্মিক মৃত্যুতে হতবাক হয়েছিলেন ক্লাব কর্তারা৷ পাইকপাড়া স্পোর্টিংয়ে অন্যতম কর্তা সুবীর গঙ্গোপাধ্যায় জানিয়েছিলেন, ‘আমরা মর্মাহত৷ মাত্র ২১ বছরের ক্রিকেটার হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গেল, এটা ভাবতে পারছি না৷ ছেলেটা দারুণ ফিল্ডিং করত৷ নক-আউটে ক্লাবের হয়ে বেশ কয়েকটি ম্যাচ খেলেছে৷ কিন্তু আজ প্র্যাকটিসের সময় হঠাৎই অজ্ঞান হয়ে গেলে অন্য খেলোয়াড়রা ওকে দ্রুত হাসপাতালে নিয়ে গেলেও অনিকেতকে বাঁচানো যায়নি৷’

এদিন সোনু যাদবের মৃত্যু নিয়ে অবশ্য তাঁর ক্লাব বালিগঞ্জ স্পোর্টিং ক্লাবের তরফে এখনও পর্যন্ত কোনও প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি৷ তবে সিএবি ক্রিকেটারের মেডিক্যাল চেক-আপ না-করেই খেলা নিয়ে প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে৷ বারবার মাঠেই ক্রিকেটারের মৃত্যু এই প্রশ্ন আরও জোরাল করল৷