কুয়েত সিটি: শুটিং, কুস্তি, হকি, অ্যাথলেটিক্স, তিরন্দাজি, কবাডির মতো ইভেন্টের পাশাপাশি এবার এশিয়ান গেমস থেকে দেশকে পদক এনে দিতে পারে ক্রিকেট৷ বিরাট কোহলিদের সামনে তেমনই সুযোগ থাকছে পরবর্তী এশিয়ান গেমসে৷

আরও পড়ুন: শেষ ওয়ান ডে-তে দ্রুততম অর্ধশতক গেইলের

২০১০ ও ২০১৪, পর পর দু’টি এশিয়ান গেমসে ক্রিকেট খেলা হলেও ২০১৮ শেষ আসর থেকে ক্রিকেট সরিয়ে নেওয়া হয়৷ যদিও পদক জয়ের সমূহ সম্ভাবনা থাকা সত্ত্বেও গুয়াংঝু ও ইঞ্চিয়নে ভারত ক্রিকেট দল পাঠায়নি৷ বিসিসিআই ঠাসা ক্রীড়াসূচির দোহাই দিয়ে দু’টি এশিয়ান গেমসে দেশের পদক সম্ভাবনার সঙ্গে অপোশ করে৷ তবে ২০২২ এশিয়ান গেমসে নিজেদের ভুল শুধরে নেওয়ার সুযোগ পাবে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড৷ কেননা, হ্যাংঝৌয়ে পুনরায় অন্তর্ভূক্ত করা হচ্ছে ক্রিকেট ইভেন্ট৷ সম্ভবত আগের দু’বারের মতো টি-২০ ফর্ম্যাটেই অনুষ্ঠিত হবে এশিয়ান গেমস ক্রিকেট৷

আরও পড়ুন: বিশ্বকাপে পাকিস্তানকে বয়কট নিয়ে ভারতের আর্জিতে সিদ্ধান্ত জানাল আইসিসি

রবিবার এশিয়ান অলিম্পিক সংস্থার জেনারেল অ্যাসেম্বলির পর হ্যাংঝৌতে ক্রিকেট ফেরানোর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়৷ ওসিএ’র সহসভাপতি রণধীর সিং এশিয়ান গেমসে ক্রিকেট পুনরায় অন্তর্ভূক্ত করার কথা জানান৷

যেহেতু পরবর্তী এশিয়ান গেমসের আহে হাতে পর্যাপ্ত সময় রয়েছে, তাই বিসিসিআই এখন থেকেই দল পাঠানোর বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে নারাজ৷ বোর্ডের তরফে ইঙ্গিত দেওয়া হয়েছে পরিস্থিতি বুঝে সিদ্ধান্ত নেওয়ার৷এক বোর্ড কর্তার কথায়, ‘২০২২ এখন অনেক দূরে৷ মাঝের সময়ে আমরা এই নিয়ে অবশ্যই আলোচনা করবষ সেই মতো পরবর্তী সময়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে৷’

আরও পড়ুন: চোয়াল চাপা লড়াইয়েও ইনিংস হারের লজ্জায় টাইগাররা

ভারত যদি শেষমেশ এশিয়ান গেমসে দল পাঠায়, তবে নিঃসন্দেহে টিম ইন্ডিয়া সোনা জয়ের প্রধান দাবিদার হবে৷ ভারতের অনুপস্থিতিতে গুয়াংঝুতে বাংলাদেশ ও পাকিস্তান যথাক্রমে ছেলে ও মেয়েদের বিভাগে গোল্ড মেডেল জেতে৷ ইঞ্চিয়নে শ্রীলঙ্কা জেতে ছেলেদের খেতাব, পাকিস্তান জেতে মেয়েদের৷